এবার সিটিসেল কর্মীদের পাওনা আদায়ে মামলা

15

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : মোবাইল ফোন অপারেটর প্যাসিফিক বাংলাদেশ টেলিকম লিমিটেড বা সিটিসেলের পাঁচ কর্মী বেতনসহ প্রাপ্য বকেয়া আদায়ে শ্রম আদালতে মামলা করেছেন । এ মামলায় সিটিসেলের চেয়ারম্যান ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম মোরশেদ খানসহ আটজনকে বিবাদী করা হয়েছে। মামলার অভিযোগ আমলে নিয়ে আগামী ৪ অক্টোবর আদালতে হাজির হতে মোরশেদ খানসহ বিবাদীদের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন আদালত।

সিটিসেলের পাঁচ কর্মীর করা পাঁচটি আলাদা মামলায় ঢাকার প্রথম শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান তাবাসসুম ইসলাম এই আদেশ দেন। মামলার বাদীরা হলেন টিপু সুলতান, কাজী রুহুল কুদ্দুস, হাসান মাহমুদ, মোসাদ্দেক মিলন ও এ কে এম এহসানুল আজাদ। তাঁরা সিটিসেলের উচ্চ ও মধ্যম পর্যায়ের কর্মী। মোরশেদ খান, তাঁর স্ত্রী নাছরিন খানসহ এসব মামলায় বিবাদীরা হলেন সিটিসেলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মেহবুব চৌধুরী, পরিচালক আসগর করিম, প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (সিএফও) তারিকুল হাসান, প্রধান কারিগরি কর্মকর্তা (সিটিও) ও প্রভিডেন্ট ফান্ড ট্রাস্টের সদস্য মাহফুজুর রহমান, প্রভিডেন্ট ফান্ড ট্রাস্টের সদস্য নিশাত আলী ও এ বি সরকার।

সিটিসেলের কর্মীদের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম। তিনি বলেন, শ্রম আইন অনুযায়ী এর আগে গত মে মাসে সিটিসেল কর্তৃপক্ষকে আইনি নোটিশ পাঠান এসব কর্মী। কিন্তু কোনো উত্তর না আসায় তাঁরা মামলা করতে বাধ্য হয়েছেন।

জানতে চাইলে সিটিসেলের সিইও মেহবুব চৌধুরী বলেন, এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সিটিসেল কর্তৃপক্ষকে কিছু জানানো হয়নি। বিস্তারিত জানলে আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

পাঁচ কর্মীর মামলার আরজির তথ্য অনুযায়ী, সিটিসেলের কাছে বেতনসহ তাঁদের পাওনা ৯৩ লাখ টাকা। এর সঙ্গে শ্রম আইন অনুযায়ী আরও ২৫ শতাংশ ক্ষতিপূরণও চেয়েছেন তাঁরা। সব মিলিয়ে প্রতিষ্ঠানের কাছে এই পাঁচ কর্মীর দাবি ১ কোটি ১৮ লাখ টাকা।
দেশের প্রথম মোবাইল ফোন অপারেটর হিসেবে ১৯৯৩ সালে কার্যক্রম শুরু করে সিটিসেল। প্রতিষ্ঠানটির ৫৫ শতাংশ শেয়ারের মালিক দেশীয় শিল্পগোষ্ঠী প্যাসিফিক মোটরস ও ফারইস্ট টেলিকম। বাকি ৪৫ শতাংশ শেয়ারের মালিক সিঙ্গাপুরভিত্তিক টেলিযোগাযোগ সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান সিংটেল। প্যাসিফিক মোটরস ও ফারইস্ট টেলিকমের কর্ণধার সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিএনপির নেতা মোরশেদ খান।

বিজনেস আওয়ার/এস আই

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here