মওদুদ হারলে বিচারবিভাগ পরাধীন, ষোড়শী সংশোধনী বাতিল হলে স্বাধীন: কাদের

21

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক

ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে আপিল বিভাগের রায়ে ‘ডিগবাজির চ্যাম্পিয়ন’ মওদুদ আহমেদ আনন্দে মেতে উঠেছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দু কাদের। তিনি বলেছেন, ‘এই মওদুদ সাহেব জিয়াউর রহমানের সরকার থেকে পদত্যাগ করেছিলেন জিয়া ইংরেজি জানেন না এই বলে। সে কথা কি ভুলে গেছেন বিএনপির লোকেরা? বন্যাদুর্গত এলাকায় যাওয়ার সময় চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত বেগম জিয়া (খালেদা জিয়া) যখন কুমিল্লা হাসপাতালে, তখন মওদুদ সাহেব তাকে হাসপাতালে রেখে জেনারেল এরশাদের সরকারে যোগ দিয়েছেন। এই মওদুদ সাহেব একবার বিএনপি, একবার জাতীয় পার্টি, আবার বিএনপি। কী করে তার পরামর্শ নেন খালেদা জিয়া।’

শনিবার দুপরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ছাত্রলীগ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আয়োজিত শোক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মওদুদ আহমেদ অবৈধভাবে দখল করা বাড়ির মামলায় হেরে গেলে বলেন বিচার বিভাগ স্বাধীন নয়; আবার খালেদা জিয়ার বাড়ির মামলা হেরে গেলেও বলেন, বিচার বিভাগ স্বাধীন নয়। আর ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট যখন রায় দিলো, তখন মওদুদ আহমেদ বলছেন, বিচার বিভাগ স্বাধীন। এই হচ্ছে এ দলের অবস্থা ।’

সুপ্রিম কোর্টের রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি নতুনভাবে ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে বলেও অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকণ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ আনন্দে মেতে উঠেছেন যেন আদালত তাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে। কিন্তু তাদের এই ষড়যন্ত্র সফল হবে না। তারা আন্দোলন করতে ব্যর্থ, নির্বাচনে হেরে যাবে বলে তারা অংশ নেয়নি। তারা আন্দোলন করতে ব্যর্থ হয়ে ষড়যন্ত্রের জাল পেতেছে। সরকার হটাতে নতুন নতুন ইস্যু খুঁজে বেড়াচ্ছে।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আপনি এত লাফালাফি করছেন কেন? কারণটা কি? আট বছরে আট মিনিটের জন্যও আন্দোলন করতে পারেননি। পারেননি কারণ, জনগণ আপনাদের সঙ্গে ছিল না। এতদিন যারা আন্দোলনের ডাক দিয়ে ঘরে বসে হিন্দি সিরিয়াল দেখে সময় কাটাতো, তারা এখন ঘর থেকে বেরিয়ে এসে আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে উঠছে; যেন আদালত তাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে। এরা এতদিন বিদেশিদের কাছে নালিশ করেছে, যেন বিদেশিরা তাদের ক্ষমতায় বসিয়ে দেবে।’

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘আমি বলতে চাই, মির্জা আলমগীর সাহেবকে, আওয়ামী লীগ কখনও পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসেনি। আর বিএনপির জন্ম হয়েছে, বন্দুকের নল দিয়ে; পেছনের দরজা দিয়ে বিএনপি ক্ষমতায় এসেছে। অন্ধকার আর ষড়যন্ত্রের পথ দিয়েই তারা এগিয়ে যাচ্ছে। সেভাবেই ২০০১-এর ষড়যন্ত্রমূলক নির্বাচন করেছিলেন, আপনি আবার মনে করছেন সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর সেই ষড়যন্ত্রমূলক নির্বাচন হবে, সেই রঙিন খোয়াব কর্পূরের মতো উড়ে যাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব।’

বিজনেস আওয়ার/ সাআ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here