ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫


ছেলের প্রেমের অপরাধে মাকে নগ্ন করে নির্যাতন

২০১৮ মার্চ ১৪ ১৯:০৬:১৫

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ছেলের প্রেমের অপরাধে তার মাকে নগ্ন করে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। শরীয়তপুরের সখিপুরের প্রত্যন্ত চরাঞ্চলের মনাই হাওলাদার কান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সখিপুরের প্রত্যন্ত চরাঞ্চলের মনাই হাওলাদার কান্দি গ্রামের রফি হাওলাদারের মেয়ে সুমাইয়া ও ছাত্তার মাঝির ছেলে ইয়াসিনের র্দীঘদিন ধরে প্রেমের সর্ম্পক চলছিল। সোমবার এ প্রেমিক যুগল কাউকে কিছু না বলে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়।


ঘটনাটি জানাজানি হলে ছেলে ও মেয়ের পরিবার তাদের উদ্ধারে খোঁজা-খোঁজি শুরু করে। পরে ছেলের প্রেমের অপরাধে মাকে নগ্ন করে শ্লীলতাহানির পর বাড়ি থেকে তাড়িয়ে ঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয় স্থানীয় প্রভাবশালী সেলিম হাওলাদার। অসহায় পরিবারটি ৮ দিন ধরে প্রাণের ভয়ে বাড়ি ফেলে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এই সুযোগে পরিবারটির গোয়ালের গরু, হাস, মুরগি, খাদ্যশস্য ফসলাদি ও মূল্যবান গৃহস্থালী সামগ্রী লুটে নিয়েছে তারা।

পাশাপাশি এ ঘটনায় সুমাইয়ার পরিবার অপহরণের মামলা করেছেন। এরপর সুমাইয়ার ভাই সেলিম হাওলাদার ইয়াসিনের মা তাসলিমা ওপর নির্যাতন চালায় ও বাড়িতে লুটতরাজ করে ঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয় বলে অভিযোগ করেন ইয়াসিনের বাবা ছাত্তার মাঝি ও মা তাসলিমা বেগম।

নির্যাতনের শিকার তাসলিমা বলেন, সেলিম আমাকে কিল ঘুষি মারতে মারতে কাপড় খুলে ফেলে। আমি পাশের বাড়ি দৌড়ে পালিয়ে যাই। তারা আমাকে লুকিয়ে রাখে। সেখানেও সে মারার জন্য খোঁজা-খোঁজি করে। এরপর ওই বাসার একটি পুরনো কাপড় নিয়ে তা পরিধান করে পালিয়ে যাই। পরে শুনি আমাদের গোয়ালের গরু, হাস, মুরগি, এমনকি ঘরের সব কিছু লুট করে নিয়ে গেছে ওরা। এছাড়া ঘরে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। জীবনের ভয়ে ৮ দিন ধরে নিজের বসতবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি। আমরা বড়ই অসহায়, এ ব্যাপারে সরকারের সহযোগিতা চাই।

সখিপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ জানান, সুমাইয়াকে অপহরণের অভিযোগে তার মা বাদী হয়ে একটি অপহরণের মামলা করেছেন। সুমাইয়াকে উদ্ধারে চেষ্টা চলছে।

তিনি বলেন, তবে ইয়াসিনের বাড়িতে লুটতরাজ ও তার মাকে নির্যাতনের বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। ঘটনাটি জানার পর আমরা প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।


বিজনেস আওয়ার /১৪ মার্চ / জেএইচ

উপরে