ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫


মার্সেল বাজারে আনল বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ফ্রিজ,টিভি,এসি

২০১৮ মার্চ ১৫ ১১:০৬:৪২

বিজনেস আওয়ার : বাংলাদেশে খুব দ্রত বাড়ছে ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সেসের বাজার। যেখানে অন্যতম শীর্ষে ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে মার্সেল। দেশীয় ব্র্যান্ড মার্সেলের প্রতি বাড়ছে গ্রাহকদের আস্থা। বাড়ছে মার্সেলর চাহিদা ও বিক্রি। এবছর ৫০ মডেলের ফ্রিজ নিয়ে এসেছে মার্সেল। সেইসঙ্গে বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে মার্সেল বাজারে এনেছে উচ্চমানের এলইডি ও স্মার্ট টিভি।

কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রতিবছরই উচ্চ প্রবৃদ্ধি বজায় রেখে চলেছে মার্সেল। খুব অল্প সময়ের মধ্যে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের গ্রাহকদের পছন্দের শীর্ষে উঠে এসে মার্সেল। তাদের মতে, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, পণ্যের সাশ্যয়ী মূল্য, উচ্চ গুণগতমান ও সেরা বিক্রয়োত্তর সেবার কারণে গ্রাহকদের মন জয় করা সম্ভব হয়েছে। সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে নিজস্ব কারখানায় দেশেই তৈরি হচ্ছে মার্সেল পণ্য। দেশের বাজারে শীর্ষস্থান অর্জনের জন্য মার্সেল কর্তৃপক্ষ নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে। পণ্য উৎপাদন ও বিপণনে নেয়া হচ্ছে আধুনিক কর্মকৌশল।

মার্সেল সূত্রমতে, গত কয়েক বছর ধরেই পণ্য বিক্রিতে গড়ে ৩০ থেকে ৩৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করে চলেছে মার্সেল। চলতি বছর প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩০ শতাংশ। এলক্ষ্যে নতুন নতুন সেলস ও সার্ভিস পয়েন্ট চালুর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। গ্রাহকরা যাতে ঘরে বসেই সেবা পেতে পারেন সেজন্য বিক্রয়োত্তর সেবায় চালু হয়েছে অন-লাইন কার্যক্রম।

জানা গেছে, গাজীপুরের চন্দ্রায় মার্সেলের নিজস্ব কারখানায় বিশ্বের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও মেশিনারিজের সমন্বয়ে উৎপাদন করা হচ্ছে ফ্রিজ, এলইডি টিভি, এয়ার কন্ডিশনারসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সেস। দক্ষ প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে গড়ে উঠা গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগ পণ্য সম্ভারে যুক্ত করছে নিত্য নতুন প্রযুক্তি পণ্য।

মার্সেল বিপণন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, এবছর স্থানীয় বাজারে মার্সেলের রয়েছে অর্ধ-শতাধিক ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল ও হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস। এর মধ্যে ইলেকট্রনিক্স ও হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস রয়েছে ফ্রিজ, এলইডি টিভি, এয়ার কন্ডিশনার, ব্লেন্ডার, গ্যাস স্টোভ, ইন্ডাকশন কুকার, রাইস কুকার, চার্জার ফ্যান, হেয়ার ড্রায়ার ও স্ট্রেইটনার, মপ সেট, এয়ার ফ্রায়ার, জুসার, ক্লথ ড্রায়ার, ফুড প্রসেসের, কুকওয়্যার, কেক মেকার, ডোনাট মেকার, কফি মেকার, স্যান্ডউইচ মেকার ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্সসহ বিভিন্ন পণ্য। ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সেসের মধ্যে রয়েছে টেবিল ফ্যান, দেয়াল ও সিলিং ফ্যান, রিচার্জেবল ল্যাম্প ও টর্চলাইট, ইলেকট্রিক সুইস-সকেট, ডাটা সকেট, এলইডি বাল্ব ইত্যাদি। বছরের শুরু থেকেই পণ্য সম্ভারে যুক্ত হচ্ছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও লেটেস্ট ডিজাইনের সব পণ্য।

এবছর স্থানীয় বাজারে মার্সেলের রয়েছে অর্ধশতাধিক চোখ ধাঁধানো মডেলের ফ্রস্ট, নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর ও ফ্রিজার। যুক্ত হয়েছে সাধারন ফ্রিজের চেয়ে ৫০ শতাংশের বেশি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রস্ট ও নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর।

পাশাপাশি রূচিশীল গ্রাহকদের জন্য চলতি বছর টেম্পারড গ্লাস ডোরের ৩৩৩ লিটার, ৩১৭ লিটার, ৩২০ লিটার:, ২৯৫ লিটার, ২৬৫ লিটার, ১৭৬ লিটার ও ১৯৩ লিটারের ফ্রস্ট ফ্রিজ উৎপাদন ও বাজারজাত করছে মার্সেল। দামে সাশ্রয়ী ও মানের দিক থেকে অনেক উন্নত হওয়ায় মার্সেলের ইনভার্টার ও টেম্পারড গ্লাস ডোরের ফ্রিজ ইতোমধ্যে ব্যাপক গ্রাহকপ্রিয়তা পেয়েছে।

দেশের টেলিভিশন বাজারে মার্সেলের রয়েছে ১৯, ২০, ২৪, ২৮, ৩২, ৩৯, ৪০, ৪৩, ৪৯ ও ৫৫ ইঞ্চির এলইডি টেলিভিশন। এর মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক ফিচার সমৃদ্ধ ৩২ ইঞ্চির স্মার্ট টিভি। স্থানীয় বাজারে অন্যান্য ব্র্যান্ডের তুলনায় সাশ্রয়ী দাম ও উচ্চ গুণগতমানের হওয়ায় মার্সেল ব্র্যান্ডের টেলিভিশন অতি দ্রুত গ্রাহক পছন্দের শীর্ষে উঠে আসছে।

এ বছর স্থানীয় এয়ার-কন্ডিশনারেরর বাজারেও নতুন প্রযুক্তি ও মডেলের এসি নিয়ে এসেছে মার্সেল। গোল্ডেন কালার ফিন ও ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির পর এবছর মার্সেল এসিতে সংযোজন করা হয়েছে আয়নাইজার প্রযুক্তি। এটি রুমের বাতাসকে ধূলা-ময়লা ও ব্যাকটেরিয়ামুক্ত করে ঠান্ডা বাতাস প্রবাহিত করবে।

মার্সেল বিপণন বিভাগের প্রধান ড মো. সাখাওয়াৎ হোসেন বলেন, পণ্য সম্ভারে যোগ হচ্ছে নতুন নতুন প্রযুক্তি ও মডেলের পণ্য। ইতোমধ্যে, চলতি বছরের প্রথম দুই মাসে (জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি) নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি পণ্য বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে এখন শুরু হয়েছে ফ্রিজ, এসিসহ অন্যান্য শীতলীকরন যন্ত্র বিক্রির প্রধান মৌসুম। এই সময়ে বিক্রি আরো কয়েকগুণ বেড়ে যাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গ্রাহকের দোরগোড়ায় দ্রুত উচ্চমানের সেবা পৌছে দিতে দেশব্যাপী সার্ভিস সেন্টার রয়েছে মার্সেলের। যেখানে কাজ করছেন প্রায় ৩ হাজার অভিজ্ঞ প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান। এছাড়া মার্সেলের এলইডি টিভি ও এসিতে আছে ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি। ফ্রিজের ক্ষেত্রে রয়েছে এক বছরের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি। অন্যান্য পণ্যেও রয়েছে সার্ভিস ওয়ারেন্টিসহ বিভিন্ন সুবিধা ও ছাড়।

বিজনেস আওয়ার/পিএস

উপরে