ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮, ২ ভাদ্র ১৪২৫


ব্যাংকের মুনাফা ৬ হাজার ৫০৮ কোটি টাকা, শীর্ষে ব্র্যাক 

২০১৮ মে ০৭ ১১:১৭:০৫

রেজোয়ান আহমেদ : ২০১৭ সালের ব্যবসায় শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের সাবসিডিয়ারিসহ (সমন্বিত) ৬ হাজার ৫০৮ কোটি টাকা নিট মুনাফা হয়েছে। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি মুনাফা হয়েছে ব্র্যাক ব্যাংকের। তবে পরিশোধিত মূলধনের তূলনায় ডাচ-বাংলা ব্যাংকের সবচেয়ে বেশি শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে। এ সময় ব্যাংকগুলোর গড় ইপিএস হয়েছে ২.৮৩ টাকা।

ব্যাংকগুলোর ২০১৭ সালের সমন্বিত আর্থিক হিসাব থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

দেখা গেছে, তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৫১৯ কোটি ২৮ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে ব্র্যাক ব্যাংকের। এরপরে ৪৯২ কোটি ৬৬ লাখ টাকা নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ইসলামি ব্যাংক। তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪৭৮ কোটি ৮৩ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের।

ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আর. এফ. হোসেন বিজনেস আওয়ারকে বলেন, ২০১৭ সাল ব্র্যাক ব্যাংকের জন্য মাইলফলক অর্জনের বছর ছিল। প্রযুক্তিতে ও মানসম্পদের উন্নয়নকল্পে ব্র্যাক ব্যাংক উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগ করেছে। যা দেশের সেরা ব্যাংক হওয়ার পথে এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে। মূল্যবোধ বিষয়ে আমরা সবসময় আপোষহীন। আর সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা ও কর্মীদের কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ব্র্যাক ব্যাংক এগিয়ে যাচ্ছে।

চলতি বছরের ৯ মাসে একমাত্র আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লোকসান করে সবার তলানিতে রয়েছে। ব্যাংকটির ৪০ কোটি ৫১ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। এরপরে সবচেয়ে কম মুনাফা হয়েছে এবি ব্যাংকের। এ সময় ব্যাংকটির ৩ কোটি ৩৭ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে। আর ৬০ কোটি ১২ লাখ টাকা নিয়ে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রূপালি ব্যাংকের ও ১১৬ কোটি ৪৫ লাখ টাকা নিয়ে তৃতীয় সর্বনিম্ন মুনাফা হয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংকের।

আরও পড়ুন.....

অধিকাংশ ব্যাংকের ইপিএসে পতন

ব্যাংকের গড় লভ্যাংশ কমেছে ১.৮৪ শতাংশ

তালিকাভুক্ত ১৬ ব্যাংকের মুনাফার শতভাগ রেখে দেওয়ার সিদ্ধান্ত

এদিকে মুনাফায় ব্র্যাক ব্যাংক সবার উপরে থাকলেও ব্যাংকটি ইপিএসে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। এক্ষেত্রে পরিশোধিত মূলধনের তুলনায় ডাচ-বাংলা ব্যাংকের সবচেয়ে বেশি মুনাফা হয়েছে। ব্যাংকটির ইপিএস হয়েছে ১২.২৮ টাকা। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্র্যাক ব্যাংকের ইপিএস ৬.০৭ টাকা। আর ৩.৯০ টাকা ইপিএস নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে সিটি ব্যাংক।

নিম্নে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর নিট মুনাফা, ইপিএস ও পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ তুলে ধরা হল। ব্রাকেটে () থাকা হিসাবকে ঋণাত্মক বোঝানো হয়েছে।

নাম

মুনাফা (টাকা)

ইপিএস

মূলধন

ব্র্যাক ব্যাংক

৫১৯.২৮কোটি

৬.০৭

৮৫৫.২১কোটি

ইসলামী ব্যাংক

৪৯২.৬৬ কোটি

৩.০৬

১৬১০কোটি

ন্যাশনাল ব্যাংক

৪৭৮.৮৩ কোটি

২.০২

২৩৭০.৪৫কোটি

দি সিটি ব্যাংক

৩৪১.৫৬ কোটি

৩.৯০

৮৭৫.৮০কোটি

এক্সিম ব্যাংক

৩৩০.৪৭ কোটি

২.৩৪

১৪১২.২৫কোটি

আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক

৩১৩.২১ কোটি

৩.১৫

৯৯৪.৩১কোটি

মার্কেন্টাইল ব্যাংক

৩০১.৯৯কোটি

৩.৮৯

৭৭৬.১২কোটি

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক

২৭১.৯৭কোটি

২.৫৮

১০৫৪.১৩কোটি

ওয়ান ব্যাংক

২৬২.৮১ কোটি

৩.৬০

৭৩০.০৩কোটি

ডাচ-বাংলা ব্যাংক

২৪৫.৬০কোটি

১২.২৮

২০০কোটি

ইস্টার্ন ব্যাংক

২৪২.৮০ কোটি

৩.২৯

৭৩৮কোটি

আইএফআইসি ব্যাংক

২৩৯.৬৭ কোটি

২.৩৪

১১৯৫.৩০কোটি

ব্যাংক এশিয়া

২১১.২২ কোটি

২.১৪

৯৮৭.০১কোটি

যমুনা ব্যাংক

২০৭.৫৭ কোটি

৩.৩৮

৬১৪.১২কোটি

মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

১৯৮.২৬ কোটি

৩.৮৯

৫০৯.৬৬কোটি

প্রিমিয়ার ব্যাংক

১৯৬.৮৯ কোটি

২.৮৩

৬৯৫.৭২কোটি

এনসিসি ব্যাংক

১৮৪.৬০ কোটি

২.০৯

৮৮৩.২২কোটি

পূবালি ব্যাংক

১৭৯.৭০কোটি

১.৮৯

৯৫০.৮০কোটি

ট্রাস্ট ব্যাংক

১৭৪.৮৯ কোটি

৩.১৪

৫৫৬.৯৭কোটি

ঢাকা ব্যাংক

১৬১.০৭ কোটি

২.২৩

৭২২.৩০কোটি

উত্তরা ব্যাংক

১৫৩.২৩ কোটি

৩.৮৩

৪০০.০৮কোটি

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক

১৪৬.১৮ কোটি

১.৯৮

৭৩৮.৩০কোটি

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক

১৩৪.৭২ কোটি

১.৮৯

৭১২.৮২কোটি

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক

১৩৪.২৩ কোটি

১.৭৪

৭৭১.৪২কোটি

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক

১২৩.৫২ কোটি

১.৫৬

৭৯১.৮১কোটি

প্রাইম ব্যাংক

১২১.৪৬ কোটি

১.১৮

১০২৯.৩৫কোটি

সাউথইস্ট ব্যাংক

১১৬.৪৫ কোটি

১.২৭

৯১৬.৯৫কোটি

রূপালি ব্যাংক

৬০.১২কোটি

১.৯৮

৩০৩.৬৪কোটি

এবিব্যাংক

৩.৩৭ কোটি

০.০৫

৬৭৩.৮৯কোটি

আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক

(৪০.৫১) কোটি

(০.৬১)

৬৬৪.৭০কোটি

মোট-৩০টিব্যাংক

মোট-৬৫০৭.৮২ কোটি টাকা

গড়-২.৮৩

মোট-২৫৭৩৪.৩৬ কোটি টাকা

তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের মোট ২৫ হাজার ৭৩৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকার পরিশোধিত মূলধন রয়েছে। এরমধ্যে ন্যাশনাল ব্যাংকের সবচেয়ে বেশি পরিশোধিত মূলধন রয়েছে। ব্যাংকটির ২ হাজার ৩৭০ কোটি ৪৫ লাখ টাকার পরিশোধিত মূলধন রয়েছে। তবে ব্যাংকটি মুনাফার হিসাবে রয়েছে তৃতীয় স্থানে। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ হাজার ৬১০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধন নিয়ে ইসলামী ব্যাংক মুনাফায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। এ ছাড়া ১ হাজার ৪১২ কোটি ২৫ লাখ টাকার তৃতীয় সর্বোচ্চ পরিশোধিত মূলধন নিয়ে এক্সিম ব্যাংক মুনাফায় ৫ম অবস্থানে রয়েছে।

অপরদিকে সবচেয়ে কম ২০০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধন নিয়ে ডাচ-বাংলা ব্যাংক মুনাফায় ১০ম স্থানে রয়েছে। এরপরে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন ৩০৩ কোটি ৬৪ লাখ টাকার পরিশোধিত মূলধন নিয়ে মুনাফায় ২য় সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে রূপালি ব্যাংক। এছাড়া তৃতীয় সর্বনিম্ন ৪০০ কোটি ৮ লাখ টাকার পরিশোধিত মূলধন নিয়ে মুনাফায় ২১তম অবস্থানে রয়েছে উত্তরা ব্যাংক।

বর্তমানে ৬টি ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন ১ হাজার কোটি টাকার উপরে রয়েছে। ব্যাংকগুলো হল- ন্যাশনাল ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক ও প্রাইম ব্যাংক।

বিজনেস আওয়ার/০৭ মে, ২০১৮/আরএ

উপরে