ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫


যেমন হবে জান্নাতি মানুষের চেহারা

২০১৮ মে ১৩ ১৯:২৯:০০

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: জান্নাত বা বেহেশত ঈমানদার মানুষের নেক আমলের পুরস্কার। যারা দুনিয়াতে ঈমান গ্রহণপূর্বক নেক কাজ করবে আল্লাহ তাআলা তাদেরকে জান্নাত দান করবেন বলে কুরআনের অনেক সুরা ও আয়াতে ঘোষণা প্রদান করেছেন।

জান্নাতি এ সব মানুষের চেহারা কেমন হবে তার বর্ণনাও রয়েছে কুরআন এবং হাদিসে। আল্লাহ তাআলা কুরআনে ইরশাদ করেন-

>> নিশ্চয় সৎলোকগণ থাকবে পরম আরাম-আয়েশে; সোফায় বসে অবলোকন করবে; (হে রাসুল!) আপনি তাদের মুখমণ্ডলে স্বাচ্ছন্দ্যের সজীবতা দেখতে পাবেন।’ (সুরা মুতাফফিফিন : আয়াত ২২-২৪)

>> সে দিন (পরকালে) অনেক মুখমণ্ডল উজ্জ্বল হবে। তারা তার রবের দিকে তাকিয়ে থাকবে।’ (সুরা ক্বিয়ামা : আয়াত ২২-২৩)

>> ‘অনেক মুখমণ্ডল হবে সেদিন সজীব; তাদের কর্মের কারণে। তারা থাকবে সুউচ্চ জান্নাতে।’ (সুরা গাশিয়া : আয়াত ৮-১০)

>> ‘সেদিন অনেক মুখমন্ডল হবে উজ্জ্বল, সহাস্য ও প্রফুল্ল।’ (সুরা আবাসা : আয়াত ৩৮-৩৯)

>> ‘আর যাদের মুখ উজ্জ্বল হবে, তারা থাকবে রহমতের মাঝে। তারা তাতে অনন্তকাল অবস্থান করবে।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১০৭)

হাদিসে পাকে প্রিয়নবি জান্নাতে প্রবেশকারী মানুষের চেহারা বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেন-

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘জান্নাতে প্রবেশকারী প্রথম দলটি পূর্ণিমা চাঁদের মতো উজ্জ্বল আকৃতিতে প্রবেশ করবে। অতঃপর আকাশের সবচেয়ে দীপ্তিমান তারকার মতো উজ্জ্বল আকৃতিতে প্রবেশ করবে। তাদের অন্তরগুলো হবে মানুষের ন্যায়। পরস্পর কোনো ধরনের শত্রুতা ও হিংসা-বিদ্বেষ পোষণ করবে না।’ (বুখারি ও মুসলিম)

দুনিয়াতে যারা আল্লাহ ও তার রাসুলের ওপর ঈমান গ্রহণপূর্বক নেক আমল করবে; তারাই হবে জান্নাতের অধিবাসী। আর জান্নাতের অধিবাসীদের চেহারাই হবে উজ্জ্বল তারকার ন্যায়।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে কুরআন-সুন্নাহ মোতাবেক জীবন পরিচালনা করে চিরস্থায়ী সুখের স্থান জান্নাতের অধিবাসী হওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

বিজনেস আওয়ার/১৩ মে/ আর এইচ

উপরে