ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫


বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে জাপানি ব্যবসায়ীদের আহ্বান বিডা'র

২০১৮ মে ১৬ ১১:০১:২৭

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ জাপানের ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম। মঙ্গলবার টোকিওতে আয়োজিত এক সেমিনারে জাপানি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের এ আমন্ত্রণ জানান তিনি।

দূতাবাসের পাঠানো প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ওসাকা শহরের প্রায় শতাধিক ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান মালিক ও তাদের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর হাসান আরিফ।

সেমিনারে বিডা'র চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন খাতে ও সূচকে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং আরো এগিয়ে যাবে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ জাপানের ব্যবসায়ীদের জন্য ভবিষ্যৎ বিনিয়োগের আদর্শ গন্তব্য হতে পারে। আগ্রহী বিনিয়োগকারীদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের উন্নয়ন বিষয়ক একটি তথ্য-চিত্র প্রদর্শনের পর বক্তব্য দেন পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ, এনারজিপ্যাকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন রশিদ এবং জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অর্গানাইজেশনের (ঢাকা) প্রতিনিধি তাইকি কোগা।

এছাড়া বাংলাদেশে ব্যবসা পরিচালনা করছে এমন তিনটি জাপানি কোম্পানি বাংলাদেশে ব্যবসা পরিচালনায় তাদের অভিজ্ঞতা ও সুবিধা-অসুবিধার কথা তুলে ধরে।

মারুহিসা কোম্পানির প্রেসিডেন্ট মাসাহিরো হিরাইশি বলেন, বাংলাদেশে আমাদের স্বয়ংসম্পূর্ণ গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি আছে। এতে প্রায় ২৭০০ কর্মী কাজ করছেন। আমরা বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্ট।

রোতো কোম্পানির প্রতিনিধি কেন আরাই বলেন, বাংলাদেশের জিডিপি দিনদিন বাড়ছে, যা অর্থনৈতিক উন্নয়ন চোখে পড়ার মতো।দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও ব্যবসার স্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টিতে সরকারের আরও দৃষ্টি দেওয়া উচিত।

বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর মোহাম্মদ হাসান আরিফ বলেন, জাপান-বাংলাদেশ বাণিজ্য সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়া এবং বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অবদান রাখার লক্ষ্যে এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে।

দেশ হিসেবে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্নয়ন অংশীদার জাপান এখন গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য অংশীদারও হয়ে উঠছে। দুই দেশের মধ্যে বার্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ প্রায় তিন বিলিয়ন ডলার, জাপান এখন বাংলাদেশের নবম রপ্তানি বাজার।

বাংলাদেশের বেসরকারি খাতের প্রতিনিধি হিসেবে এনার্জিপ্যাকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন রশিদ নিজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। এক সময় বাংলাদেশ নিয়ে নিরাশ হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছিলেন তিনি। পরে ১৯৯৬ সালে দেশে ফিরে আসার কথা জানান তিনি।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মো. ফয়জুল্লাহ সেমিনারে গ্যাস ও এলএনজি নিয়ে সরকারের কার্যক্রম তুলে ধরেন। বুধবার টোকিওতে জাপানি আরেক দল ব্যবসায়ীর সঙ্গে মতবিনিময় করবেন বাংলাদেশের এই প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।

বিজনেস আওয়ার/১৬মে/এমএএস

উপরে