ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫


প্রথম প্রান্তিকেও ব্যাংক খাতের মুনাফায় ধস

২০১৮ মে ১৬ ১৩:৩৫:২৭

রেজোয়ান আহমেদ : আগের বছরের ন্যায় চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ ১৮) ব্যবসায়ও শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মুনাফায় ধস নেমেছে। এ সময় ৭৩ শতাংশ পর্যন্ত ব্যাংকের মুনাফা কমেছে। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি পতন হয়েছে ওয়ান ব্যাংকের।

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে ২৯টি ব্যাংকের চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক হিসাব প্রকাশ করা হয়েছে। আর নির্দিষ্ট সময় পার হয়ে গেলেও পূবালি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ সংক্রান্ত সভা করতে পারেনি। ২৯টি ব্যাংকের মধ্যে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২০১৮ সালের ১ম প্রান্তিকে ১৭টি বা ৫৯ শতাংশ ব্যাংকের ইপিএস কমেছে। আর ২টি বা ৭ শতাংশ ব্যাংকের লোকসান হয়েছে।

এএফসি ক্যাপিটালের প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা (সিইও) মাহবুব এইচ মজুমদার বিজনেস আওয়ারকে বলেন, মনস্তাত্তিক ও সংখ্যাত্মক কারন ব্যাংকের মুনাফায় নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

তিনি বলেন, ২-৪টি ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারিতে অন্য ব্যাংকগুলোতেও মানুষের আস্থার সংকট তৈরী হয়েছে। যাতে ব্যাংকগুলোর ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। আর স্বাভাবিকভাবে একটি ব্যাংক নিম্নমূখী হলে সঙ্গে আরও কয়েকটির একই অবস্থা সৃষ্টি হয়। যাতে সব মিলিয়ে এ বছরের ১ম প্রান্তিকে ব্যাংকগুলোর নিম্নমূখী অবস্থা।

আলোচিত সময়ে সবচেয়ে বেশি ইপিএস কমেছে ওয়ান ব্যাংকের। ব্যাংকটির ৭৩ শতাংশ ইপিএস কমেছে। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৮ শতাংশ কমেছে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের। আর ৫৬ শতাংশ কমে ৩য় স্থানে রয়েছে প্রাইম ব্যাংক।

এদিকে সবচেয়ে বেশি ইপিএস হয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের। আগের বছরের থেকে ১০ শতাংশ বেড়ে ব্যাংকটির ইপিএস হয়েছে ৩.১৯ টাকা। এরপরে ব্র্যাক ব্যাংকের ইপিএস হয়েছে ১.১৮ টাকা। ২০১৮ সালের প্রথম প্রান্তিকে এই ২টি ব্যাংকের ইপিএস ১ টাকার বেশি হয়েছে।

নিম্নে ইপিএস হ্রাস পাওয়া ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থা তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম

২০১৮ সালের ১ম প্রান্তিকের ইপিএস (টাকা)

২০১৭ সালের ১ম প্রান্তিকের ইপিএস (টাকা)

পতনের হার

ওয়ান ব্যাংক

০.৩৩

১.২৩

(৭৩%)

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক

০.০৮

০.১৯

(৫৮%)

প্রাইম ব্যাংক

০.৩৪

০.৭৮

(৫৬%)

এবি ব্যাংক

০.১৬

০.৩১

(৪৮%)

উত্তরা ব্যাংক

০.৩৯

০.৭২

(৪৬%)

ইস্টার্ন ব্যাংক

০.৬৯

১.২৭

(৪৬%)

ন্যাশনাল ব্যাংক

০.১২

০.২২

(৪৫%)

ইসলামী ব্যাংক

০.৩৬

০.৬৫

(৪৫%)

আল-আরাফাহ ব্যাংক

০.৪১

০.৭১

(৪২%)

দি সিটি ব্যাংক

০.৪০

০.৬৭

(৪০%)

রূপালি ব্যাংক

০.২৭

০.৩৮

(২৯%)

সাউথইস্ট ব্যাংক

০.৬৮

০.৯৬

(২৯%)

ট্রাস্ট ব্যাংক

০.৮৩

১.০৫

(২১%)

শাহজালালইসলামিব্যাংক

০.৪০

০.৪৯

(১৮%)

মার্কেন্টাইল ব্যাংক

০.৮৬

১.০৩

(১৭%)

ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক

০.৪৪

০.৪৮

(৮%)

ঢাকা ব্যাংক

০.৫৫

০.৫৭

(৩%)

আগের বছরের ১ম প্রান্তিকের ন্যায় ২০১৮ সালের ১ম প্রান্তিকেও ২টি ব্যাংকের লোকসান হয়েছে। তবে এক্সিম ব্যাংকের লোকসান ৩৬ শতাংশ কমে হয়েছে ০.৩৪ টাকা। আর ৮ শতাংশ বেড়ে আইসিবি ইসলামিক ব্যাংকের ইপিএস হয়েছে ০.১৩ টাকা।

আরও পড়ুন...

২০১৭ সালের ব্যবসায় অধিকাংশ ব্যাংকের ইপিএসে পতন

নিম্নে লোকসানি ব্যাংকের তথ্য তুলে ধরা হল-

ব্যাংকেরনাম

২০১৮ সালের ১ম প্রান্তিকের ইপিএস (টাকা)

২০১৭ সালের ১ম প্রান্তিকের ইপিএস (টাকা)

হ্রাস/বৃদ্ধির হার

এক্সিম ব্যাংক

(০.৩৪)

(০.৫৩)

৩৬%

আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক

(০.১৩)

(০.১২)

(৮%)

২০১৮ সালের প্রথম প্রান্তিকে সবচেয়ে বেশি হারে ইপিএস বেড়েছে স্যোশালইসলামীব্যাংকের। আগের বছরের তুলনায় ব্যাংকটির ইপিএস বেড়েছে ২৬০ শতাংশ। এরপরে ২১০ শতাংশ বেড়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক। আর ৭১ শতাংশ বেড়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্যাংক এশিয়া।

নিম্নে ইপিএস বৃদ্ধি পাওয়া ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থা তুলে ধরা হল-

ব্যাংকেরনাম

২০১৮ সালের ১ম প্রান্তিকের ইপিএস (টাকা)

২০১৭ সালের ১ম প্রান্তিকের ইপিএস (টাকা)

বৃদ্ধির হার

স্যোশাল ইসলামী ব্যাংক

০.৩৬

০.১০

২৬০%

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক

০.৩১

০.১০

২১০%

ব্যাংক এশিয়া

০.৬০

০.৩৫

৭১%

যমুনা ব্যাংক

০.৫২

০.৩৯

৩৩%

মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

০.৭৩

০.৫৭

২৮%

আইএফআইসি ব্যাংক

০.৩০

০.২৬

১৫%

ব্র্যাক ব্যাংক

১.১৮

১.০৭

১০%

ডাচ-বাংলা ব্যাংক

৩.১৯

২.৯১

১০%

এনসিসি ব্যাংক

০.৩৯

০.৩৮

৩%

প্রিমিয়ার ব্যাংক

০.৪৫

০.৪২

২%

বিজনেস আওয়ার/১৬ মে, ২০১৮/আরএ

উপরে