ঢাকা, রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮, ৪ ভাদ্র ১৪২৫


আতলেতিকো মাদ্রিদের ঘরে ইউরোপা লিগের শিরোপা

২০১৮ মে ১৭ ১১:১১:৩১

বিজনেস আওয়ার ডেস্কঃ ইউরোপা লিগ চ্যাম্পিয়ন জিতলো অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ডিয়েগো সিমোওন আর তার দলের আরেকটি সাফল্য। ফ্রান্সের লিওঁতে বুধবার রাতে টুর্নামেন্টের ফাইনালে মার্শেইকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ

ইউরোপা লিগে আরেকটি সাফল্য স্পেনের। ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় সর্বশেষ নয় চ্যাম্পিয়নের আটটিই স্পেনের। আগামী সপ্তাহে রিয়াল মাদ্রিদ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতলে এটা দশে নয় হয়ে যাবে।

নয় মৌসুমে ইউরোপা লিগের তিনটি শিরোপা ঘরে তুলল অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এর মধ্যে দুটিই সিমোওনের হাত ধরে। ২০০৯-১০ ও ২০১১-১২ মৌসুমে আগের শিরোপা দুটি জিতেছিল মাদ্রিদের ক্লাবটি। সর্বশেষটি সিমোওনের কোচিংয়েই।

ম্যাচের শুরুতে বেশ আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে খেলতে থাকে মার্শেই। বল নিজেদের দখলে রেখে প্রতিপক্ষকে খুব একটা সুবিধা করতে দেয়নি তারা। তবে ম্যাচের ২১ মিনিটে নিজেদের ভুলেই প্রতিপক্ষকে গোল পাইয়ে দেয় মার্শেই। গোলরক্ষকের কাছ থেকে পাওয়া বল মার্শেই খেলোয়াড় ঠিকমতো নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে চলে আসে গাবির কাছে।

আতলেতিকো অধিনায়কের বাড়ানো পাস সুযোগ বুঝে জালে জড়ান গ্রিজম্যান। এগিয়ে যাওয়ার পর আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে আতলেতিকো। বেশ কিছু আক্রমণ করলেও গোলের দেখা পায়নি লা লিগায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা দলটি। ১-০ গোলে এগিয়ে থাকার স্বস্তি নিয়েই শেষ করতে হয় প্রথমার্ধ।

বিরতি থেকে ফিরে আসার পরও আগের মতো আক্রমণ চালিয়ে যেতে থাকে ক্লাবটি। আক্রমণের ফলস্বরূপ ম্যাচের ৪৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন গ্রিজম্যান। কোকের পাস ধরে বক্সের ভেতর থেকে নিজের দ্বিতীয় গোল উদযাপন করেন এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

২-০ ব্যবধানের ম্যাচটি আরো রঙিন করেন ফার্নান্দেজ গাবি। ৮৯ মিনিটে প্রতিপক্ষ শিবিরে দলের হয়ে শেষ গোলটি করেন তিনি। ফলে মাদ্রিদ শিবিরে শিরোপা জয়ের উৎসব আরো রঙিন ও প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে।

এই মৌসুমে শিরোপা জিতে ইউরোপা লিগের তৃতীয় শিরোপা জিতল লা লিগার ক্লাবটি। ২০১০ ও ২০১২ সালে তারা এ টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতে নিয়েছিল।

বিজনেস আওয়ার/১৭মে/এমএএস

উপরে