ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫


আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল অপো মোবাইল কোম্পানি

২০১৮ মে ২৭ ১৬:৫৯:১১

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক: বিশ্বের চতুর্থ শীর্ষ স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপো, ডুয়্যাল ক্যামেরা প্রযুক্তির শীর্ষ লাইসেন্স প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান কোরফটোনিক্সের সাথে একটি স্ট্র্যাটেজিক লাইসেন্সিং চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এই চুক্তির অধীনে অপো’র স্মার্টফোন ক্যামেরার রোডম্যাপ-সাপোর্টিং হাই অপটিক্যাল জুম ফ্যাক্টরসমূহ, যথাযথ ডেপথ ম্যাপিং, আল্ট্রা-ফাস্ট ডিজিটাল বোকেহ এবং অন্যান্য অত্যাধুনিক ফিচার, যেমন অপটিক্স, মেকানিক্স, কম্পিউটেশনাল ফটোগ্রাফি, ডিপ লার্নিং সহ আরও অনেক ক্ষেত্রে নতুন নতুন উদ্ভাবনের লক্ষ্যে অপো কোরফটোনিক্সের সাথে কাজ করবে।

অপো’র হার্ডওয়্যার ডিরেক্টর ড. কিং বলেন, “অপো’র মূল ফোকাস হলো মোবাইল ফটোগ্রাফি এবং আমরা কোরফটোনিক্সের মতো শীর্ষ সাপ্লায়ারদের সাথে কাজ করতে সবসময়ই আগ্রহী ছিলাম।” তিনি আরও বলেন, “কোরফটোনিক্সের পেরিস্কোপ-স্টাইল কনস্ট্রাকশন, অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন ও ইমেজ ফিউশন টেকনোলজি এবং এজ মোবাইল ফটোগ্রাফিসহ ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ও টেলিফটো লেন্স সমৃদ্ধ ডুয়্যাল ক্যামেরাগুলো প্রায় ডিজিটাল ক্যামেরার মতোই কাজ করে।”

কোরফটোনিক্সের সিইও প্রফেসর ডেভিড মেন্ডলোভিক বলেন, “স্মার্টফোন ইমেজিং এর ক্ষেত্রে নতুন উদ্ভাবনে অপো’র রয়েছে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। অপো’র আগামী প্রজন্মের ক্যামেরা প্রযুক্তি নিয়ে অপো টিমের সাথে কাজ করার সুযোগ তৈরি হওয়ায় আমরা গর্বিত। ভবিষ্যত মোবাইল ফটোগ্রাফিতে আমাদের ক্যামেরার ডিজাইন ও ইমেজিং অ্যালগরিদমের যে সুফল রয়েছে তার মূল হিসেবে কাজ করবে এই স্ট্র্যাটেজিক চুক্তি।”

কোরফটোনিক্সের সাথে অপো’র গ্লোবাল অ্যাসোসিয়েশন প্রসঙ্গে অপো বাংলাদেশ-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ড্যামন ইয়াং বলেন, “অপো সেলফি ফটোগ্রাফিকেই সর্বাধিক প্রাধান্য দিয়ে থাকে। কোরফটোনিক্সের সাথে অপো’র এই বন্ধুত্বের মাধ্যমে আমরা আমাদের গ্রাহকদের আরও উন্নত প্রযুক্তি এবং সেবা দিতে পারব বলে আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস।”

গ্রাহকদের চাহিদা মেটাতে, স্মার্টফোন প্রস্তুতকারকরা ফোনের বৈশিষ্ট্য ও মূল্যের সাথে কোনো আপোস না করে ব্যবহারকারীদের ক্যামেরা ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে সমৃদ্ধ করতে নিয়মিত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এর ওয়াইড-স্প্যান মাল্টি অ্যাপারচার প্রযুক্তিসমূহের দ্বারা, কোরফটোনিক্স ক্যামেরা উদ্ভাবনের মাধ্যমে উচ্চকার্যক্ষমতা ইমেজিং সল্যুশন্স-এ নতুনত্ব প্রদান করতে সক্ষম। সর্বনিম্ন একটি ওয়াইড এঙ্গেল অ্যাপারচার এবং একটি টেলিফটো অ্যাপারচারের সমন্বয়ে, বর্তমানে বিশ্বের অনেক জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড এখন এর ক্যামেরা ডিজাইনসমূহ অন্তর্ভূক্ত করছে। ফোল্ডেড ক্যামেরা পদ্ধতিতে আরও উদ্ভাবনসমূহ এসেছে, যেগুলো ক্যামেরা মডিউল উচ্চতায়ও বৃহৎ হ্রাস ঘটিয়েছে। এটি এখনো ৫এক্স অপটিক্যাল জুম, অপ্রতিদ্বন্দ্বী কম আলো কার্যক্ষমতা এবং অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন সাপোর্ট করে। ইমেজ কোয়ালিটি এবং সামগ্রিকভাবে ক্যামেরা ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা বৃদ্ধি করে, এই ক্যামেরার ডিজাইনসমূহ মাল্টি-অ্যাপারচার সফটওয়্যার এবং অ্যালগরিদমসমূহ দ্বারা উদ্দীপ্ত।

বিজনেস আওয়ার/ ২৭ মে / আর এইচ

উপরে