ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮, ৫ কার্তিক ১৪২৫

ss-steel-businesshour24
Runner-businesshour24

দুই বছর পর ইফতারের আয়োজন করছে কংগ্রেস

২০১৮ জুন ১০ ১৮:০৪:৫০

বিজনেস আওয়ার ডেস্কঃ দুই বছর পর আগামী ১৩ জুন ইফতারের আয়োজন করছে ভারতের প্রধান বিরোধী পার্টি কংগ্রেস। রাহুল গান্ধী দলের সভাপতি হবার পর প্রথম ইফতার পার্টির আয়োজন করছেন। দিল্লির হোটেল তাজ প্যালেসে এই ইফতার পার্টি হবে বলে জানিয়েছেন কংগ্রেসের সংখ্যালঘু সেলের প্রধান নাদিম জাভেদ।

আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে একাধিক রাজনৈতিক নেতাদের। ২০১৫ সালে শেষবার ইফতারের আয়োজন করেছিলেন তৎকালীন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী।

প্রোথা অনুযায়ী সব ধর্মের লোকজনের পাশাপাশি শীর্ষস্তরের কূটনৈতিক দের ইফতারের আমন্ত্রন জানায় কংগ্রেস। তাদের এবারের ইফতার পার্টির দিকে নজর থাকবে রাজনৈতিক মহলের। আগামী লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে বিরোধী শিবির কে একজোট করার পরিকল্পনা করে এগোচ্ছে কংগ্রেস।

'২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে এই ইফতার পার্টির মাধ্যমে কংগ্রেস নেতৃত্ব হয়তো দেখে নিতে চাইছেন কারা কারা তাদের সাথে আছে' বলেছেন এক পর্যবেক্ষক।

কয়েকদিন আগে ভারতের রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কভিন রীতি ভেঙ্গে রাষ্ট্রপতিভবনে করদাতাদের অর্থে ইফতারের মতো ধর্মীও অনুষ্ঠান পালন করা হবে না বলে নিজের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। সম্প্রতি তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্র শেখর রাও এর দেওয়া ইফতার পার্টি কে ঘিরে আলোচনা, বিতর্ক হয়েছে তাতে প্রচুর আড়ম্বর, খরচের অভিযোগ ওঠে।

ইফতার পার্টি বসিয়েছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীওয়ালও। যদিও সেখানে গনহাজির ছিলেন কংগ্রেস নেতারা।

২০১৬ সালের আগে নিয়মিত ইফতারের আয়োজন করত কংগ্রেস। ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং প্রতি বছরই উদ্যোগ নিতেন। বিরোধী পক্ষে থাকাকালীন সোনিয়া গান্ধীও ইফতার পার্টি দিতেন, যদিও ২০১৬ -২০১৭ সালে কংগ্রেস ঠিক করে ইফতার হবে না।

কংগ্রেসের এই ইফতারে কারা কারা আসছেন সেটা দেখার' বলেছেন এক পর্যবেক্ষিক।

বিজনেস আওয়ার/১০জুন/আর আই

উপরে