ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫


পাবনায় মা, ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা

২০১৮ জুলাই ০৪ ১২:৩২:৩১

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (পাবনা) : পাবনার বেড়া উপজেলায় নেশার টাকার জন্য তুহিন হোসেন নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মা, ছোট ভাই ও আপন খালাকে গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার ভোররাতে উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের সোনাপদ্মা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন তুহিনের মা বুলি খাতুন (৪০), ছোট ভাই তুষার হোসেন (১০) ও আপন খালা নছিমন খাতুন (৪৫)।

এব্যাপারে বেড়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশিষ বিন হাসান আরটিভি অনলাইনকে জানান, বুধবার ভোর রাত চারটার দিকে সোনাপদ্মা গ্রামের মিঠু হোসেনের বড় ছেলে তুহিন হোসেন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মা বুলি খাতুন, ছোট ভাই তুষার ও আপন খালা নছিমন খাতুনকে গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করে।

খবর পেয়ে সকালে পুলিশ বাড়ির উঠোন থেকে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর থেকে হত্যাকারী তুহিন পলাতক রয়েছে। হত্যার কারণ জানা যায়নি। তবে পারিবারিক বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

তুহিনের স্ত্রী রুনা খাতুন পুলিশকে জানিয়েছেন, দুই মাস আগে তার স্বামী টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হন। তারপর থেকে তুহিন মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছিলেন। এরপর থেকে সে তুচ্ছ ঘটনায় মানুষের সঙ্গে ঝগড়া-বিবাদে জড়িয়ে পড়ত।

এলাকাবাসী জানান, তুহিন ছিল মাদকাশক্ত। মায়ের কাছে নেশার টাকা চেয়ে না পেয়ে প্রথমে তিনি মাকে কুপিয়ে হত্যা করেন এবং খালা ও ছোটভাই এগিয়ে এলে তাদেরও কুপিয়ে হত্যা করেন। এ সময় তুহিনের স্ত্রী রুনা বেগম দৌড়ে পার্শ্ববর্তী আলম শেখের বাড়িতে আশ্রয় নেন। আলম শেখের বাড়ির লোকজনসহ অন্য প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে গেলে ঘাতক তুহিন পালিয়ে যান।

বিজনেস আওয়ার/৪জুলাই/এমএএস

উপরে