ঢাকা, শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫


পাকিস্তানে নির্বাচনী সমাবেশে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ১৩

২০১৮ জুলাই ১১ ০৯:৪৩:৫৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানে একটি নির্বাচনী সমাবেশে আত্মঘাতী বোমা হামলায় একজন রাজনীতিকসহ ১৩ জন নিহত হয়েছেন। ওই হামলায় আরও ৫৪ জন আহত হয়েছেন। দেশটিতে জাতীয় ও প্রাদেশিক নির্বাচনের দুই সপ্তাহ আগে এই হামলার ঘটনা ঘটলো।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশের রাজধানী পেশোয়ার শহরে আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টির (এএনপি) ওই সমাবেশে এই হামলা চালানো হয়েছে। তালেবানের মতো বিভিন্ন জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকার কারণে অতীতেও হামলার শিকার হতে হয়েছে দলটিকে।

এমন এক সময় এই হামলার ঘটনার ঘটলো যখন ২৫ জুলাইয়ের নির্বাচনকে সামনে রেখে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। পেশোয়ার শহরের পুলিশ প্রধান কাজি জামিল বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ওই হামলায় এএনপি’র প্রার্থী হারুন বিলোরসহ ১৩ জন নিহত হয়েছেন।

হারুন বিলোর খাইবার-পাখতুনখাওয়া প্রদেশের একটি প্রভাবশালী রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। তার বাবা বশির বিলোরও এএনপি’র শীর্ষ নেতা ছিলেন। তিনিও ২০১২ সালে এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত হন।

পুলিশ কর্মকর্তা সাফকাত মালিক বলেছেন, প্রাথমিকভাবে আমরা যে তথ্য পেয়েছি, তাতে এটি একটি আত্মঘাতী হামলা এবং এর লক্ষ্যবস্তু ছিল হারুন বিলোর। প্রায় ২০০ সমর্থকদের সামনে একটি সমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় এই হামলা চালনো হয়।

স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচারে দেখা গেছে, ঘটনাস্থল থেকে হতাহতের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এসময় কিছু লোককে কাঁদতে দেখা যায়।

এদিকে কেউই এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পেশোয়ার বেশকিছু বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। সেগুলোর অধিকাংশই পাকিস্তানি তালেবান ও তাদের মিত্ররা চালিয়েছিল।

বিজনেস আওয়ার/১১জুলাই/এমএএস

উপরে