ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫


'মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের নামে চলছে মানুষ হত্যা'

২০১৮ জুলাই ১১ ১৬:০৬:২২

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক: গেলো মে মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে সরকার মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে র‌্যাব ও পুলিশ বাহিনী দ্বারা সারা দেশে এ পর্যন্ত দেড় শতাধিক সাধারণ মানুষকে বিনাবিচারে ও পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন ফ্যাসিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী জাতীয় কমিটির সভাপতি বদরুদ্দীন উমর। আজ বোধবার (১১ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ফ্যাসিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী জাতীয় কমিটির আয়োজনে এক যৌথ বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

বদরুদ্দীন উমর বলেন, তথাকথিত এই মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধে মাদক ব্যবসার মূল হোতা এবং রাজনৈতিক ও বিভিন্ন বাহিনীর দুর্নীতি পরায়ণ পৃষ্ঠপোষকদের বিরুদ্ধে কোনো আইনি ও বিচারিক পদক্ষেপ না নিয়ে, নির্বিচারে ও প্রমাণহীনভাবে নিম্নস্তরের তথাকথিত অপরাধীদের খুন করে দেশবাসীকে প্রকৃত ঘটনা সম্পর্কে ধোঁকা দেয়া হচ্ছে। বিনাবিচারে এই হত্যাযজ্ঞ থেকে এমনকি নারী অপরাধী ও বাদ যায়নি।

তিনি বলেন, অপরাধের প্রতি জিরো টলারেন্সের ঘোষণার আড়ালে প্রমাণিত অপরাধীর সাজা রাষ্ট্রীয়ভাবে মওকুফ করে নিরাপদে দেশ ত্যাগ করার সুযোগ করে দেয়ায়, নজিরবিহীন দুর্নীতি ও লুটপাটকারীদের বিচার না করার এবং মাদক পাচারের সাথে জরিত আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ না করে বাহিনীর নিজস্ব শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহনের যে ন্যক্কারজনক দৃষ্টান্ত একই সময়ে স্থাপন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা মাদক দমনের নামে নির্বিচারে হত্যা করা প্রতিটি মানুষের নাম ঠিকানা সহ সম্পূর্ণ পরিচয় জনসম্মখে প্রকাশ করার দাবি জানাচ্ছি। একই সাথে আমরা আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ ছাড়া যে কোনো মানুষকে গ্রেফতার, আটক ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে।

এ ধরনের কাজের হুকুমদাতা কর্মকর্তা ও জড়িত সদস্যদের সংবিধান লঙ্ঘন ও আইনের শাসনবিরোধী অপরাদ সংগঠনের দায়ে বিচারের অধীনে আনার এবং নাগরিকদের সকল গণতান্ত্রিক অধিকার নিশ্চিত করে তাদের জীবনের নিরাপত্তা বিধান ও মৌলিক সুরক্ষার ব্যবস্থা করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

বিজনেস আওয়ার/১১জুলাই/এনআইবি/এমএএস

উপরে