ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫


এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ অনিশ্চিত সাকিবের

২০১৮ আগস্ট ১০ ১৫:০০:৩৫

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ হাতের আঙুলে অস্ত্রোপাচারের কারণে অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসানের আসন্ন এশিয়া কাপে অংশগ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আগামী মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিতব্য এ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ না করার ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। তবে সাকিব এশিয়া কাপ খেলুক সেটা চান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে ফিরে বৃহস্পতিবার বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন সাকিব। সে সময় তিনি বলেন, ‘সবাই জানেন যে আমার অস্ত্রোপাচার করা দরকার। আমি মনে করি এটি খুব দ্রুত সম্পন্ন করা উচিত। সম্ভবত এশিয়া কাপের আগে।’

গত জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে বাঁ-হাতের কনিষ্ঠ আঙুলে আঘাত পেয়েছিলেন সাকিব। যে কারণে তিনি সে সময় টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে অংশগ্রহণ করতে পারেননি। এরপর অস্ট্রেলিয়ায় চিকিৎসা শেষে মার্চে শ্রীলঙ্কার মাটিতে নিদাহাস ট্রফিতে দলে ফিরেন টাইগার অলরাউন্ডার।

অস্ট্রেলিয়ায় চিকিৎসার সময়েই ডাক্তাররা তার ওই আঙুলে অস্ত্রোপাচার করানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন। সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্র ও ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে ২-১ ব্যবধানে জয়ী টি-টোয়েন্টি সিরিজে আবারও ওই আঙুলের ব্যথা অনুভব করেন সাকিব।

সামনে বাংলাদেশ দলের জন্য অপেক্ষা করছে ব্যস্ত সূচি। রয়েছে ২০১৯ বিশ্বকাপ। এ জন্য তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠতে অস্ত্রোপাচারে আর বিলম্ব করতে চান না সাকিব। বলেন, ‘পুরোপুরি সুস্থ না হয়ে আমি খেলতে চাই না। সেটা করতে হলে স্বাভাবিকভাবেই এশিয়া কাপের আগেই অস্ত্রোপচার করতে হবে।’

এশিয়া কাপে ‘বি’ গ্রুপ বাংলাদেশের প্রতিদ্বন্দ্বি অপর দুই দল হচ্ছে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। আগামী ১৫ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ার এ শীর্ষ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট।

এদিকে বৃহস্পতিবার সাকিবের এ বিষয়ে হোটেল র‌্যাডিসন ব্লুতে সাংবাদিকদের পাপন বলেন, ‘সাকিব ফোন করে অস্ত্রোপচারের কথা বলেছে। হেড কোচও ফোন করেছিল। ও ইনজেকশন নিয়ে নিয়ে খেলছে; কিন্তু অপারেশন হলে অন্তত ছয় সপ্তাহের বিরতি দরকার। এত লম্বা বিরতি পাওয়া কঠিন। চেষ্টা করা হচ্ছে, যদি কোনো খেলার মাঝখানে ওকে বিরতি দেয়া যায়। ওকে ছাড়া আমরা চিন্তাই করতে পারছি না।’

বিজনেস আওয়ার/১০ আগস্ট, ২০১৮ /আর আই

উপরে