ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

২০১৮ সালের প্রথমার্ধ

ব্যাংকগুলোর মূলধন বাড়লেও ৪ শত কোটি টাকার মুনাফা কমেছে

২০১৮ আগস্ট ২৮ ১০:৪৮:৫৫

রেজোয়ান আহমেদ : আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২০১৮ সালের ৩০ জুনে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন বেড়েছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা বা ১০ শতাংশ। ন্যূনতম মূলধনের ধারনের শর্ত পরিপালন ও মুনাফা বাড়ানোর লক্ষ্যে বোনাস শেয়ার ও রাইট শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে এই মূলধন বাড়ানো হয়েছে। তবে ব্যাংকগুলোর আগের বছরের তুলনায় ২০১৮ সালের প্রথমার্ধের (জানুয়ারি-জুন) ব্যবসায় নিট মুনাফা কমেছে প্রায় ৪০০ কোটি টাকা বা ১২ শতাংশ।

ব্যাংকগুলোর ২০১৮ সালের প্রথমার্ধের সমন্বিত আর্থিক হিসাব থেকে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

২০১৭ সালের ৩০ জুন তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ছিল ২৫ হাজার ৩৩৯ কোটি ২৯ লাখ টাকা। যা চলতি বছরের ৩০ জুন বেড়ে দাড়িঁয়েছে ২৭ হাজার ৯০০ কোটি ২৫ লাখ টাকা। এ হিসাবে মূলধন বেড়েছে ২ হাজার ৫৬০ কোটি ৯৬ লাখ টাকা বা ১০.১১ শতাংশ।

অন্যদিকে ব্যাংকগুলোর পরিশোধিত মূলধন বাড়লেও আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় চলতি বছরের প্রথমার্ধে মুনাফা কমেছে ৩৯৪ কোটি ৫২ লাখ টাকার বা ১২.৩৮ শতাংশ। ব্যাংকগুলোর চলতি বছরের প্রথমার্ধের ব্যবসায় ২ হাজার ৭৯২ কোটি ৪৭ লাখ টাকা নিট মুনাফা হয়েছে। যার পরিমাণ ২০১৭ সালের প্রথমার্ধে হয়েছিল ৩ হাজার ১৮৬ কোটি ৯৯ লাখ টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বিজনেস আওয়ারকে বলেন, একেক ব্যাংকের একেক কারনে মুনাফা কমতে পারে। তবে সাধারনত খেলাপি ঋণের পরিমাণ বেড়ে যাওয়ার কারনে নিট মুনাফা কমেছে।

আরও পড়ুন....

প্রথমার্ধের ব্যবসায় উত্থানের শীর্ষে এমটিবি, পতনে ওয়ান ব্যাংক

দেখা গেছে, আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ১৫টি বা ৫০ শতাংশ ব্যাংকের মুনাফা কমেছে। আর ১টি বা ৩.৩৩ শতাংশ ব্যাংকের লোকসান বেড়েছে। বাকি ১৪টি বা ৪৬.৬৭ শতাংশ ব্যাংকের মুনাফা বেড়েছে।

তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৩০২ কোটি ৭৫ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে ইসলামী ব্যাংকের। এরপরে ২৫৩ কোটি ৪১ লাখ টাকা নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। তৃতীয় সর্বোচ্চ ২১৬ কোটি ৫৮ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে পূবালি ব্যাংকের।

চলতি বছরের প্রথমার্ধে একমাত্র আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লোকসান করে সবার তলানিতে রয়েছে। ব্যাংকটির ২০ কোটি ৫৮ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। এরপরে সবচেয়ে কম মুনাফা হয়েছে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের। এ সময় ব্যাংকটির ৮ কোটি ৯১ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে। আর ১৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকা নিয়ে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রূপালি ব্যাংকের ও ১৮ কোটি ১৭ লাখ টাকা নিয়ে তৃতীয় সর্বনিম্ন মুনাফা হয়েছে এক্সিম ব্যাংকের।

নিম্নে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংকগুলোর টাকায় নিট মুনাফা ও পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ তুলে ধরা হল। ব্রাকেটে () থাকা হিসাবকে ঋণাত্মক বোঝানো হয়েছে।

ব্যাংকের নাম

২০১৮ সালের প্রথমার্ধের মুনাফা

২০১৭ সালের প্রথমার্ধের মুনাফা

পরিশোধিত মূলধন (জুন ১৮)

পরিশোধিত মূলধন (জুন ১৭)

এবি ব্যাংক

২৯.৮২ কোটি

৫৭.১৭ কোটি

৭৫৮.১৩ কোটি

৬৭৩.৮৯ কোটি

আল-আরাফাহ ব্যাংক

৪৪.৪৭ কোটি

১১৯.০৬ কোটি

১০৪৪.০২ কোটি

৯৯৪.৩১ কোটি

দি সিটি ব্যাংক

১৩৮.৯৭ কোটি

১৯০.৭৫ কোটি

৯৬৭.৯৯ কোটি

৮৭৫.৮০ কোটি

ইস্টার্ন ব্যাংক

১৩৪.৮৮ কোটি

১৭০.৫১ কোটি

৭৩৮ কোটি

৭৩৮ কোটি

এক্সিম ব্যাংক

১৮.১৭ কোটি

২৮২.৫৮ কোটি

১৪১২.২৫ কোটি

১৪১২.২৫ কোটি

ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক

৩৬.৮৮ কোটি

৫৯.২২ কোটি

৭৮৪.১০ কোটি

৭১২.৮২ কোটি

আইএফআইসি ব্যাংক

৫৭.০৬ কোটি

৮৩.২৪ কোটি

১৩৭৮.৮৪ কোটি

১১৯৫.৩০ কোটি

মার্কেন্টাইল ব্যাংক

১১২.৬৯ কোটি

১৫৭.৫৩ কোটি

৮১৪.৯২ কোটি

৭৭৬.১২ কোটি

ওয়ান ব্যাংক

৩০.৭৫ কোটি

১৩৮.৬৭ কোটি

৭৬৬.৫৩ কোটি

৭৩০.০৩ কোটি

প্রাইম ব্যাংক

৭৯.৭৯ কোটি

৮৭.৯৪ কোটি

১১৩২.২৮ কোটি

১০২৯.৩৫ কোটি

রূপালি ব্যাংক

১৩.৩৬ কোটি

২০.১৭ কোটি

৩৭৬.৫২ কোটি

৩০৩.৬৪ কোটি

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক

৮.৯১ কোটি

৩৬.২৩ কোটি

৮৭০.৯৯ কোটি

৭৯১.৮১ কোটি

ট্রাস্ট ব্যাংক

৬০.১২ কোটি

১১৭.৭৮ কোটি

৫৫৬.৯৭ কোটি

৫৫৬.৯৭ কোটি

ইউসিবি ব্যাংক

১১১.১৭ কোটি

১৩১.৬২ কোটি

১০৫৪.১৩ কোটি

১০৫৪.১৩ কোটি

উত্তরা ব্যাংক

৫৫.২৬ কোটি

৮১.২৪ কোটি

৪০০.০৮ কোটি

৪০০.০৮ কোটি

আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক

(২০.৫৮)কোটি

(১৮.২৫)কোটি

৬৬৪.৭০ কোটি

৬৬৪.৭০ কোটি

ব্র্যাক ব্যাংক

২৫৩.৪১ কোটি

২২৭.০৯ কোটি

১০৭২.৫০ কোটি

৮৫৫.২১ কোটি

ব্যাংক এশিয়া

১২১.৬৮ কোটি

৪৬.৩৪ কোটি

১১১০.৩৯ কোটি

৯৮৭.০১ কোটি

ঢাকা ব্যাংক

৫৯.৭৯ কোটি

৫৯.৫১ কোটি

৮১২.৫৮ কোটি

৭২২.৩০ কোটি

ডাচ-বাংলা ব্যাংক

১৬২.৫২ কোটি

১৪১.৯৪ কোটি

২০০ কোটি

২০০ কোটি

ইসলামী ব্যাংক

৩০২.৭৫ কোটি

২৯০.৫৮ কোটি

১৬১০কোটি

১৬১০ কোটি

যমুনা ব্যাংক

১০৭.৯৪ কোটি

৭৯.৮৪ কোটি

৭৪৯.২৩ কোটি

৬১৪.১২ কোটি

মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

৮৭.২৭ কোটি

৪২.২২ কোটি

৫৭৩.৩৬ কোটি

৫০৯.৬৬ কোটি

ন্যাশনাল ব্যাংক

১৩২.৯৩ কোটি

১০৪.৭২ কোটি

২৬৫৪.৯১ কোটি

১৯৭৫.৩৮ কোটি

এনসিসি ব্যাংক

৮৮.৪৩ কোটি

৭০.৬০ কোটি

৮৮৩.২২ কোটি

৮৮৩.২২ কোটি

প্রিমিয়ার ব্যাংক

৭৭.৩২ কোটি

৭০.২৭ কোটি

৮০০.০৮ কোটি

৬৯৫.৭২ কোটি

পূবালি ব্যাংক

২১৬.৫৮ কোটি

১১৪.৪৬ কোটি

৯৯৮.৩৪ কোটি

৯৫০.৮০ কোটি

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক

৭৭.৭৫ কোটি

৭৫.৮৪ কোটি

৮৪৮.৫৭ কোটি

৭৭১.৪২ কোটি

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক

৩৩.৪১ কোটি

২৯.৪০ কোটি

৮১২.১৩ কোটি

৭৩৮.৩০ কোটি

সাউথইস্ট ব্যাংক

১৫৮.৯৭ কোটি

১১৮.৭২ কোটি

১০৫৪.৪৯ কোটি

৯১৬.৯৫ কোটি

মোট-৩০টি ব্যাংক

মোট-২৭৯২.৪৭ কোটি

মোট-৩১৮৬.৯৯ কোটি টাকা

মোট-২৭৯০০.২৫ কোটি

মোট-২৫৩৩৯.২৯ কোটি টাকা

মুনাফা কমেছে- ৩৯৪.৫২ কোটি টাকা

মূলধন বেড়েছে-২৫৬০.৯৬ কোটি টাকা

তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে ন্যাশনাল ব্যাংকের সবচেয়ে বেশি পরিশোধিত মূলধন রয়েছে। ব্যাংকটির ২ হাজার ৬৫৪ কোটি ৯১ লাখ টাকার পরিশোধিত মূলধন রয়েছে। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ হাজার ৬১০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধন রয়েছে ইসলামী ব্যাংকের। আর ১ হাজার ৪১২ কোটি ২৫ লাখ টাকার পরিশোধিত মূলধন নিয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে এক্সিম।

বর্তমানে ১০টি ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন ১ হাজার কোটি টাকার উপরে রয়েছে। ব্যাংকগুলো হল- ন্যাশনাল ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক ও ব্যাংক এশিয়া।

বিজনেস আওয়ার/২৮ আগস্ট, ২০১৮/আরএ

উপরে