ঢাকা, রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৫


ঝিনাইদহে স্কুল ছাত্র সাফিন হত্যায় জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার ১

২০১৮ ডিসেম্বর ০৪ ১৪:৫৪:২৯


বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (ঝিনাইদহ) : ঝিনাইদহ শহরের হামদহ শান্তিনগর পাড়ায় দিনে-দুপুরে মেধাবি স্কুল ছাত্র সাফিন আলম হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বজলুর রহমান নামের একজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে তাকে হামদহ এলাকা থেকে আটক করা হয়। আটককৃত বজলুর রহমান সদর উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে।

এ দিকে থানায় হত্যা মামলা দায়ের হওয়ার পরও তদন্ত কাজে অগ্রগতি ও জড়িত ঘাতকদের খুজে আটক করতে না পারায় স্বজন, এলাকাবাসী, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। হত্যার ঘটনার পর থেকে ফেসবুকে তার বিচার চেয়ে সরব হয়েছে গোটা জেলাবাসী।

স্কুল ছাত্র মাদক সেবনকারী, চুরি বা ছিনতাইকারীদের হাতে নির্মমভাবে বাসায় খুন হলো সেটি তদন্ত করে জড়িতদের আটকের দাবি জানিয়েছেন গোটা জেলাবাসি। হত্যাকান্ডের পর থেকে এ জেলার মানুষ ফেসবুকে বিচার চেয়ে ঝড় তুলেছেন।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক বলেন, ঝিনাইদহে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেনীর মেধাবি ছাত্র সাফিন আলম হত্যার ঘটনায় অজ্ঞাত নামা আসামি করে নিহতের পিতা আলমগীর হোসেন আলম একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। হত্যার ঘটনার পর থেকে পুলিশ ক্লু উদ্ধার করার জন্য এলাকায় অভিযান চালিয়ে আসছিলো।

থানা পুলিশ এ হত্যাকান্ডটি নানা দিক বিচার-বিশ্লেষন করে তদন্তের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এরই মাঝে গতরাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে বজলুর রহমানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে যাচ্ছে। অচিরেই এ আলোচিত হত্যাকান্ডের মুল মোটিভ উদ্ধার করে মিডিয়াকে জানানো হবে।

বিজনেস আওয়ার/০৪ ডিসেম্বর, ২০১৮/আরএইচ/এমএএস

উপরে