sristymultimedia.com

ঢাকা, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

শুরুতেই নেই দুই ওপেনার

ইনিংস হার বাঁচাতে পারবে তো টাইগাররা!

১০:৫২এএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : আগের দিন শেষ বিকেলে অনেকটা টি-টোয়েন্টি স্টাইলে খেলছিলেন উমেশ যাদব ও রবিন্দ্র জাদেজা। ড্রেসিং রুম থেকে খোদ অধিনায়ক বিরাট কোহলিরই নির্দেশনাটাই নাকি অনুসরণ করেছেন দু'জন। তৃতীয় দিনে আর ব্যাট করার ইচ্ছে ছিল না ভারতের।

তবে নিজেদের ইনিংসটা শুক্রবার ঘোষণা করেনি স্বাগতিকরা। কিছুটা রহস্য জমা রেখেছিলেন কোহলি। কিন্তু শনিবার সকালে শিশির ভেজা উইকেটের কথা মাথায় রেখে আর নামছেন না ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে সকালেই পাঠালেন ভারত অধিনায়ক।

ইন্দোর ১ম ইনিংসে ভারত ইনিংস ঘোষণা করল ৬ উইকেট ৪৯৩ রানে। এর আগে প্রথম ইনিংসে ১৫০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ৩৪৩ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করছে বাংলাদেশ। ইনিংস হার বাঁচানোই মুমিনুলদের প্রথম লক্ষ্য!

ভারতকে রান পাহাড়ে নিয়ে গেছেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। তিনি তুলে নেন তার তৃতীয় সেঞ্চুরি। এর মধ্যে তিনটি শতক পেয়েছে তার সবশেষ ৫ ইনিংসে! মেহেদি মিরাজকে ছক্কা হাঁকিয়ে তুলে নেন টেস্ট ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি।

৩২ রানে প্রাণ পেয়ে সুযোগটা কাজে লাগালেন তিনি। ফেরেন ২৪৩ রানে। ৩৩০ বলের ইনিংসে ছিল ২৮ চার ও ৮ ছক্কা। মায়াঙ্কের ব্যাটিং দেখে অবশ্য আঁচ করার উপায় নেই ক্যারিয়ারের অষ্টম টেস্ট ম্যাচটি খেলতে নেমেছেন!

টেস্টে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের একমাত্র ডাবল সেঞ্চুরিয়ান ছিলেন কোহলি। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে তার ব্যাট থেকে আসে ২০৪। এবার তাকেও ছাড়িয়ে গেলেন মায়াঙ্ক। তবে টপকাতে পারলেন না শচীন টেন্ডুলকারকে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ভারতের সর্ব্বোচ সংগ্রাহক এখনো সেই মাস্টার ব্যাটসম্যানই। যিনি ২০০৪ সালে ঢাকায় করেন ২৪৮ রান। ইন্দোর টেস্টের ইনিংস হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ।

শনিবার টেস্টের তৃতীয় দিনে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে মুমিনুল হকের দলকে। প্রথম ইনিংসের ভুলগুলো কাটাতে না পারলে নিশ্চিত করেই দুঃস্বপ্ন সঙ্গী হবে টাইগারদের!

তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে আবারও ব্যর্থ ইমরুল কায়েস। প্রথম ইনিংসে আউট হয়েছিলেন তিনি উমেশ যাদবের বলে। দ্বিতীয় ইনিংসেও ভারতীয় পেসারের শিকার ইমরুল কায়েস। কাকতালীয়ভাবে এবারও আউট ৬ রানে।

প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যার্থ সাদমান ইসলাম। ইশান্ত শর্মার বলে তিনিও ইমরুলের সমান রান করে সাত সকালেই সাজ ঘরে ফেরেন।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৯ ওভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে ১৮ রান। মুমিনুল হক (৬) এবং মোহাম্মদ মিথুন (১) রানে ব্যাট করছেন।

বিজনেস আওয়ার/১৬ নভেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে