দুদক সূত্রে জানা যায়, পরস্পর যোগসাজশে প্রতারণা ও ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে ঋণের নামে ব্যাংকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কৃষি ব্যাংকের সাবেক ওই ডিজিএমের বিরুদ্ধে পৃথক তিন মামলা করা হয়। মামলায় ওই আসামিসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে ৪৩০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়। মঙ্গলবার জুবায়ের মঞ্জুর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। রাজধানীর তেজগাঁও থানায় গত আগস্ট মাসে তাঁর বিরুদ্ধে দুদক পৃথক তিনটি মামলা করেন।

বিজনেস আওয়ার/২৮ নভেম্বর, ২০১৭/এমএজেড