ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬


বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে শেয়ারবাজারে আসার অপেক্ষায় ৯ কোম্পানি

১১:২৬পিএম, ০৬ জানুয়ারি ২০১৮

শেয়ারবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে টাকা তুলতে যাচ্ছে ৯ কোম্পানি। বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে তহবিল সংগ্রহের জন্য কোম্পানিগুলো রোডশো সম্পন্ন করে বর্তমানে কোম্পানিগুলো নিয়ন্ত্রক সংস্থার চুড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

কোম্পানিগুলো হলো- আমান কটন ফাইবার্স, বসুন্ধরা পেপার মিলস, বেঙ্গল পলি অ্যান্ড পেপার মিলস, ইনডেক্স এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ, ডেল্টা হসপিটাল, পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস, এডিএন টেলিকম লিমিটেড, এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন ও রানার অটোমোবাইলস লিমিটেড।

আমান কটন ফাইব্রার্স লিমিটেড: বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে আমান কটনের সর্বোচ্চ দর নির্ধারিত হয় ৫৬ টাকা। পরবর্তীতে কোম্পানিটির কাট-অফ প্রাইস ৪০ টাকা নির্ধারিত হয়। এরফেলে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা কোম্পানিটির শেয়ার ১০ শতাংশ কম দরে অর্থাৎ ৩৬ টাকা দরে আইপিওতে বরাদ্দ পাবে। কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে ৮০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। সংগৃহীত অর্থ কারখানার নতুন যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম ক্রয়, ব্যাংকঋণ পরিশোধ এবং আইপিও প্রক্রিয়ার খরচ বাবদ ব্যয় করবে।

কোম্পানিটি। ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

বসুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটিড: সুন্ধরা পেপার মিলস লিমিটেডের কাট-অফ প্রাইস নির্ধারিত হয় ৮০ টাকায়। প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) ১০ শতাংশ বা ৪ টাকা কমিয়ে প্রতিটি শেয়ার ৭২ টাকা দরে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ১২৫ কোটি সংগ্রহ করবে কোম্পানিটি।

বেঙ্গল পলি অ্যান্ড পেপার লিমিটেড : বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে শেয়ারবাজারে তালিকাভু্ক্তির জন্য গত বছরের ৯ অক্টোবর ‘রোড শো’ করেছে। কোম্পানিটিকে আইপিওতে আনতে ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্ব নিয়েছে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্টস্ লিমিটেড। আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড রেজিস্ট্রার টু দি ইস্যুর দায়িত্বে রয়েছে। কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে ৫৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে।

ইনডেক্স এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ : গত বছর ১৮ অক্টোবর রোডশো সম্পন্ন করেছে। প্রতিষ্ঠানটি বাজার থেকে ৪০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। কোম্পানিটিকে আইপিওতে আনতে ইস্যু ম্য্যানেজারের দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড ও ইবিএল ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

ডেল্টা হসপিটাল লিমিটেড : গত ৬ অক্টোবর রোড শো সম্পন্ন করা প্রতিষ্ঠানটি সংগ্রহ করবে ৫০ কোটি টাকা। গত ৩০ জুন ২০১৬ হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদনে বাজারে আসতে চায় কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে কোম্পানির ইপিএস হয়েছে এক টাকা ৮৮ পয়সা ও শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য হয়েছে ৪০ টাকা। কোম্পানিটিকে আইপিওতে আনতে ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্ব নিয়েছে প্রাইম ফিন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস : টাকা উত্তোলনে ২৪ অক্টোবর রোডশো সম্পন্ন করা প্রতিষ্ঠানটি পুঁজিবাজার থেকে উত্তোলন করবে ৭০ কোটি টাকা। কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজারের দায়িত্ব রয়েছে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

রানার অটোমোবাইলস : দেশীয় অটোমোবাইলস উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটি ১৯ অক্টোবর রোডশো সম্পন্ন করেছে। প্রতিষ্ঠানটি পুঁজিবাজার থেকে উত্তোলন করবে ১০০ কোটি টাকা।

এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেড (ইপিজিএল) : বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে বাজার থেকে ১৫০ কোটি টাকা সংগ্রহ করতে চায় কোম্পানিটি। উত্তোলিত অর্থের বড় অংশ ব্যয় করা হবে কোম্পানির এলপি গ্যাস ব্যবসার সক্ষমতা বাড়াতে। গত বছরের ১৫ অক্টোবর প্রতিষ্ঠানটি রোডশো সম্পন্ন করেছে।

এডিএন টেলিকম লিমিটেড : বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে এজন্য গত ১৯ অক্টোবর, বৃহষ্পতিবার সন্ধা ৭ টায় লা মেরিডিয়ানে রোডশো সম্পন্ন হয়েছে। কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড এবং রেজিস্টার টু দি ইস্যু হিসেবে কাজ করছে রুটস ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

বিজনেস আওয়ার ২৪/ ৬ জানুয়ারি ২০১৮/ এস আই

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে