ঢাকা, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫


শীতে ত্বকের যত্ন নেবেন যেভাবে

২০১৯ জানুয়ারি ০৫ ১২:৩৩:১২

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : শীতকালে ত্বকের সমস্যা বলতে প্রথমেই আসে রুক্ষ ত্বকের প্রসঙ্গ। বাতাসে আর্দ্রতা যত কমতে শুরু করে, ততই প্রকট হতে থাকে শুষ্কতা। তাই ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখার দিকে বিশেষ নজর দিন।

সারাবছর যে ধরনের ফেসওয়াশই ব্যবহার করুন না কেন, শীতের কয়েক মাস ক্রিম-বেসড ফেসওয়াশ ব্যবহার করুন। অতিরিক্ত ফেনা হয়, এমন ফেসওয়াশ ব্যবহার করার প্রয়োজন নেই। এতে ত্বক আরও বেশি শুষ্ক হয়ে পড়ে।

তাছাড়া এই সময় ত্বকে ঘাম জমার সম্ভাবনা থাকে না বলে ধুলাবালি এবং তৈলাক্তভাব দূর করার জন্য ক্রিম-বেসড জেন্টল ফেসওয়াশই যথেষ্ট। প্রতিদিন সকালে এবং সন্ধ্যাবেলা বাড়ি ফিরে এই ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এরপর তুলায় করে কোনও ময়শ্চারাইজিং টোনার বা গোলাপজল দিয়ে মুখ মুছে নিন।

শীতের কয়েকমাস ময়শ্চারাইজাইর কোনভাবেই বাদ দেওয়া চলবে না। বিশেষত যাদের ত্বক তৈলাক্ত, তারা অনেকসময়ই মনে করেন যে তাদের ত্বকের জন্য ময়শ্চারাইজার প্রয়োজনীয় নয়। এই ধারণা কিন্তু ভুল। বিভিন্ন ঋতুতে আমাদের ত্বকের ধরনেও পরিবর্তন আসে।

তবুও যদি শীতের সময় ত্বক খুব তৈলাক্ত মনে হয়, সেক্ষেত্রে ওয়াটার বেসড ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুন। দু’সপ্তাহে একবার স্ক্রাব ব্যবহার করলেই যথেষ্ট। তবে যাঁরা প্রতিদিন অসম্ভব ধুলার মুখোমুখি হন, তাঁরা সপ্তাহে একবার স্ক্রাব ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রেও কোনও জেন্টল স্ক্রাব ব্যবহার করলে ভাল।

এছাড়া সপ্তাহে একদিন কোনও নারিশিং ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। ১ চা-চামচ মধু, ১ চা-চামচ টকদই, ১/২ চা-চামচ আমন্ড অয়েল এবং ১ চা-চামচ অ্যালোভেরা জেল একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন। ১৫-২০ মিনিট রেখে ঈষদুষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

স্বাভাবিক কিংবা তৈলাক্ত ত্বকের জন্য প্রতিদিন এইটুকু যত্নই যথেষ্ট। তবে শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে যেহেতু সমস্যা আরও বেশি, তাই যত্নের বেলাতেও একটু বেশি পরিশ্রম করতে হবে। ক্লিনজিং-টোনিং-ময়শ্চারাইজিং এর পাশাপাশি প্রতিদিন রাতে শুতে যাওয়ার আগে মুখ পরিস্কার করে দুধের সর লাগাতে পারেন।

কিছুক্ষণ রেখে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এরপর সাধারণ ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে শুতে যান। সপ্তাহে একদিন অর্ধেক পাকা কলা, ১ চা-চামচ মধু এবং ১ চা-চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে ঈষদুষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। স্নানের পর মুখে গ্লিসারিনও লাগাতে পারেন।

বিজনেস আওয়ার/০৫ জানুয়ারি, ২০১৮/এমএএস

উপরে