ঢাকা, রবিবার, ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬


নারায়ণগঞ্জে গ্যাস বিস্ফোরণ, নিহত ২

২০১৯ এপ্রিল ২২ ১০:৫৪:৪০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে একটি মেস বাসায় পাইপ লাইনের ছিদ্র থেকে গ্যাস জমে বিস্ফোরণে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে, দগ্ধ হয়েছেন আরও সাতজন। দগ্ধদের ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

নিহতরা হলো- মেহেরপুর জেলার মুজিবনগর থানার কোমরপুর এলাকার দুদু মিয়ার ছেলে শামিম (৩০) ও ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার কয়া এলাকার রহিম বিশ্বাসের ছেলে হেলাল বিশ্বাস ওরফে রাকিব (২৫)।

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও সাতজন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সোমবার (২২ এপ্রিল) ভোররাতে উপজেলার ভুলতা ইউনিয়নের সাঁওঘাট এলাকায় ওয়াসিম মিয়ার তিনতলা বাড়ির নিচতলার একটি ফ্ল্যাটে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে সাঁওঘাট এলাকার ওই বাড়ির মালিক রাবেয়া আক্তার মিলি নামের একজন আইনজীবী। ভোর ৩টার দিকে বিকট শব্দে ওই বাড়ির নিচতলায় বিস্ফোরণ ঘটে এবং চারপাশের দেয়াল উড়ে গিয়ে কয়েকশ ফুট দূরে গিয়ে পড়ে।

শবে বরাতের রাতের শেষে বিকট ওই বিস্ফোরণের শব্দে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে আশপাশের লোকজন গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় ছয়জনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠায়। আরও তিনজনকে নেওয়া হয় স্থানীয় একটি ক্লিনিকে।

রূপগঞ্জের কাঞ্চন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন ইনচার্জ আবদুল মান্নান জানান, রোববার রাতে ওই মেস বাসার রান্নাঘরে গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে গ্যাস ছড়িয়ে থাকে। ভোর রাতে মেস বাসার কেউ একজন রান্নাঘরে চূলা জ্বালাতে গেলে আগুন ছড়িয়ে পড়লে তিনি দগ্ধ হন।

এক পর্যায়ে পুরো ফ্ল্যাটে আগুন ছড়িয়ে পরে। এসময় ফ্ল্যাটের অন্যান্য বাসিন্দারাও দগ্ধ হন। পরে তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা এসে আগুন নেভায় এবং দগ্ধ ছয়জনকে গুরুতর আবস্থায় ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে নিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে কাঞ্চন ফায়ার স্টেশনের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়।

তিনি আরও জানান, গ্যাসের লিকেজ থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তদন্তের পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ঘটনায় আরও তিনজনকে ভুলতার বেসরকারি হাসপাতাল আল রাফি ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির কনস্টেবল মো. রায়হান জানান, তারা দুজনই স্থানীয় নেক্সট এক্সেসরিস লিমিটেড নামে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিক ছিলেন।
আহতদের মধ্যে তরিকুল (৩০) ও হযরত আলী (৩২) নামের দুইজনের অবস্থা গুরুতর। তাদেরকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এছাড়া লিয়াকত (৪০) ও আরিফুল (৪২) নামের দুইজনকে বার্ন ইউনিটে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বিজনেস আওয়ার/২২ এপ্রিল, ২০১৯/এ

উপরে