ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬


নিজেকে নির্দোষ দাবি কণ্ঠশিল্পী মিলার

২০১৯ জুন ১৭ ১১:৫২:০৩


বিনোদন ডেস্ক : দীর্ঘদিনের প্রেম, অতঃপর বিয়ে। তবে বিয়ের পর সংসার মাত্র চার মাস। গত বছর মারধরের অভিযোগ তুলে স্বামী পারভেজের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের যান কণ্ঠশিল্পী মিলা।

মিলার অভিযোগ বিচ্ছেদের পরবর্তী সময়ে তাকে শুধু হুমকি দিয়েও ক্ষান্ত হয়নি এই বৈমানিক, চলতি বছরের ৫ জুন অ্যাসিড নিক্ষেপের নাটক সাজিয়ে মিলার বিরুদ্ধে মামলা করেন তিনি। আর এই গায়িকার অভিযোগ তাকে হয়রানি করতেই নতুন এই কৌশল।

গত ২৫ এপ্রিল রাজধানীর বৈইলি রোডে স্বামী পারভেজের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। এর পরই দুজন একে অপরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করতে থাকেন।

এদিকে গত ২ জুন কে বা কারা মিলার সাবেক স্বামী পারভেজের গায়ে অ্যাসিড ছুড়ে মারে। কিন্ত পারভেজের অভিযোগ মিলাই নাকি এই অ্যাসিডের সাথে জড়িত।

এই ঘটনায় গত ৫ জুন তিনি অ্যাসিড অপরাধ দমন আইনের মিলা ও তার সহযোগী পিটার কিমকে আসামি করে মামলা করেন। মামলাটি বর্তমানে তদন্ত করছে উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি চন্দ্র সাহা।

এর সুত্র ধরে গত ১৪ জুন সঙ্গীতশিল্পী মিলা ও তার সহযোগী জন পিটার কিমের ১১ মিনিট ১০ সেকেন্ডের ফোনালাপ প্রচার হয় একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে। সেখানে মিলা এই ঘটনায় কিমের উপর ক্ষোভ ঝাড়েন।

কেন এই ধরণের ঘটনা ঘটেছে সেই বিষয়ে কিমকে সতর্ক করে বলেছেন, এধরণে ঘটনার জন্য কিম তুই দায়ি থাকবি। এখানে আমাকে টেনে আনবি না। দীর্ঘ এই ফোনাআলাপে মিলা বার বার নিজেকে নিদোর্ষ দাবি করেছেন।

মিলা বলেন, আমি তোকে তো কিছুই বলিনি। তোকে পুলিশ সন্দেহ করছে। যেখানেই লুকিয়ে থাকিস তোকে পুলিশ খুঁজে বের করবে। আর সানজারি এমনিতেই জেলে যেত কিন্তু তুই যে কাজটা করেছিস তা আমার জন্য সত্যিই অনেক খারাপ হলো।

এদিকে ফোনালাপে মিলা কিমকে অ্যাসিড নিক্ষেপের কথা জিজ্ঞাসা করলে কিম জানায় তিনি ভয়ে পালিয়েছেন, এ ধরণের কোন কাজ করেননি। যদিও কিম-মিলার ফোনালাপে বোঝা যাচ্ছে অ্যাসিড নিক্ষেপের সাথে মিলা জড়িত নয়।

তবে মিলার ভাষায় সাজানো হয়রানি থেকে রেহায় পাবেন কি না জনপ্রিয় এই কণ্ঠশিল্প সেটাই এখন দেখা বিষয়।

বিজনেস আওয়ার/১৭ জুন, ২০১৯/এ

উপরে