ঢাকা, শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

গণপিটুনিতে ঘাতক নিহত

কুমিল্লায় চারজনকে কুপিয়ে হত্যা

২০১৯ জুলাই ১০ ১৩:৫৭:৫৭

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (কুমিল্লা): কুমিল্লার দেবীদ্বারে দিনেদুপুরে মা-ছেলেসহ চারজনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে মোখলেসুর রহমান (৩৪) নামে এক যুবক। এ ঘটনায় গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন মোখলেসুর। বুধবার (১০ জুলাই) সকালে উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- রাধানগর গ্রামের মো. শাহ আলমের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৪০), ছেলে আবু হানিফ ( ১২), একই গ্রামের নুরুল ইসলামের স্ত্রী নাজমা আক্তার (৩৬) ও মা মাজেদা বেগম (৫৫)। ঘাতক মোখলেসুর রহমান একই গ্রামের মর্তুজা আলীর ছেলে।

জানা গেছে, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ঘাতক মোখলেসুর রহমান প্রতিবেশী আনোয়ারা বেগম, হানিফ, নাজমা বেগম ও মাজেদা বেগমসহ ৬/৭ জনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন।

এতে আনোয়ারা বেগম, হানিফ ও নাজমা ঘটনাস্থলেই মারা যান। আহত মাজেদা বেগমসহ অন্যদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাজেদা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্যরা চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

দেবীদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল হক বলেন, মোখলেসুর রহমান নামের ওই ব্যক্তি মাদকাসক্ত ছিলেন। তিনি এলাকায় নানা ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

আজ সকালে তিনি প্রথমে আবু হানিফকে কুপিয়ে হত্যা করেন। হানিফ সে সময় ফসলের মাঠে কাজ করছিলেন। এ সময় এগিয়ে এলে একে একে তিনি অন্যদের কুপিয়ে জখম করেন।

এ সময় ঘটনাস্থলেই পাঁচজন নিহত হন। এক স্কুলছাত্র ও এক নারী আহত হন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে মোখলেসুর রহমান নিহত হন।

ঘটনার প্রকৃত কারণ জানা যায়নি, তদন্ত চলছে। নিহত ঘাতকসহ পাঁচজনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/১০ জুলাই, ২০১৯/এ

উপরে