ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬


ফজরের নামাজের সুন্নাতের গুরুত্ব, মর্যাদা ও ফজিলত

২০১৯ আগস্ট ২০ ১৬:৫৪:০৮


বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : ফজরের সুন্নাতের গুরুত্ব, মর্যাদা ও ফজিলত অনেক বেশি। যেহেতু ফজরের সুন্নাত নামাজের গুরুত্ব, মর্যাদা ও ফজিলত বেশি সেহেতু আগে আগে মসজিদে যাওয়াই উত্তম।

যাতে তাড়াহুড়ো করে কিংবা ফজরের জামাতে মাসবুক হয়ে সুন্নাত পড়তে না হয়।ফজরের সুন্নাত নামাজ আদায়ের ব্যাপারে হাদিসে যে তাগিদ দেয়া হয়েছে, তা অন্য কোনো সুন্নাত নামাজের ক্ষেত্রে দেয়া হয়নি।

হাদিসে এসেছে-

> হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘ফজরের দুই রাকাত (সুন্নাত) দুনিয়া ও দুনিয়ার মধ্যে যা কিছু আছে তার চেয়ে উত্তম।’ (মুসলিম)।

> অন্য হাদিসে তিনি আরো বর্ণনা করেন যে, ‘রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ফজরের দুই রাকাত (সুন্নাত) নামাজে এতবেশি গুরুত্ব দিতেন, যা অন্য কোনো নফল (বা সুন্নাত) নামাজে দেননি।’ (বুখারি, মুসলিম)।

> হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘তোমরা এ দুই রাকাত (সুন্নাত) কখনো ত্যাগ করো না, যদিও শত্রুবাহিনী তোমাদের তাড়া করে।’ (আবু দাউদ)।

> হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি- ‘তোমরা ফজরের দুই রাকাত (সুন্নাত) এর ব্যাপারে পুরোপুরি যত্নবান হও। কারণ তা ফজিলতপূর্ণ বিষয়সমূহের অন্তর্ভুক্ত।’ (মুসনাদে আহমাদ)।

ফজরের সুন্নাত নামাজ আদায়ের গুরুত্ব মর্যাদা ও ফজিলত সম্পর্কে হাদিসে পাকে অনেক প্রমাণ পাওয়া যায়। সুতরাং মুসলিম উম্মাহর উচিত ফজর নামাজের আগেই সুন্নাত যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে তা আদায় করা।

ফজরের জামাত শুরু হলে কী করবেন?

ফজরের নামাজের ইকামত শুরু হয়ে গেছে কিংবা জামাত শুরু হয়ে গেছে; সে ক্ষেত্রে ফজরের সুন্নাত নামাজ ছাড়া অন্য সুন্নাত হলে তা না পড়ে জামাতে শরিক হওয়া জরুরি।

আর যদি ফজরের সুন্নাত নামাজ হয় তখন দেখতে হবে, সুন্নাত পড়ে জামাত পাওয়া যাবে কীনা। যদি মনে হয় যে সুন্নাত পড়েও জামাত পাওয়া যাবে তবে ফজরে সুন্নাত নামাজ পড়ে নেয়া।

আবার এ কথা ভুলে গেলে চলবে না যে- জামাতে নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে প্রথম কাতারে দাঁড়ানো এবং তাকবিরে উলা তথা প্রথম তাকবিরসহ জামাতে অংশগ্রহণের ফজিলতও অনেক বেশি।

তাই ফজরের সুন্নাত নামাজ ধীরস্থিরভাবে আদায়ের জন্য আগে আগে মসজিদে উপস্থিত হওয়া জরুরি। অথবা বাসা কিংবা ঘর থেকে সুন্নাত পড়ে মসজিদের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হওয়া।

মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা মুসলিম উম্মাহকে ফজরের সুন্নাত নামাজ যথাযথভাবে নিয়মিত আদায় করার তাওফিক দান করুন। ফজরের সুন্নাত আদায়ের পর তাকবিরা উলার সঙ্গে ফজরের জামাআতে অংশগ্রহণ করার তাওফিক দান করুন। আল্লাহুম্মা আমিন।

বিজনেস আওয়ার/২০ আগস্ট, ২০১৯/এ

উপরে