ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬


শোভন-রাব্বানীকে নিয়ে নো কমেন্টস

২০১৯ সেপ্টেম্বর ১৫ ১১:৩১:৫৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নাহিয়ান জয় ও লেখক ভট্টাচার্যের নাম ঘোষণার পরপরই সংগঠনটির নেতাকর্মীরা জড়ো হতে শুরু করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে। নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তদের স্বাগত জানানো হয় মিছিল আর শ্লোগানে।

ছাত্রলীগের নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে স্বাগত জানিয়েছেন বর্তমান কমিটিতে পদবঞ্চিত নেতারা। নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কর্মীদের মূল্যায়ণ করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তারা।

এ সময় সদ্য বিদায়ী শোভন-রাব্বানীকে নিয়ে নানা সমালোচনাও করেন তারা। যদিও বর্তমানে পদে থাকা নেতারা এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাননি।

ছাত্রলীগ নেতারা জানান, দেশরত্ন শেখ হাসিনা নিজে গতবার কমিটি দিয়েছিলেন। সে কমিটিকে আমরা স্বাগতও অভিনন্দন জানিয়েছিলাম। কিন্তু যখনই কমিটি ভুল করেছিলো আমরা তার প্রতিবাদ করেছি।

বিদায়ী কমিটি ছাত্রলীগকে ব্যক্তিগত স্বার্থে ব্যবহার করেছে। যার কারণেই মূলত আজ তাদের এই পতন। তারা সংগঠনকে বিতর্কিত করেছে। যা একদমই অন্যায় ছিলো।

পদবঞ্চিতদের প্রত্যাশা, শোভন-রাব্বানী যেভাবে ক্ষমতা কুক্ষিগত করেছে, তার থেকে বেরিয়ে এসে সংগঠনকে ভালোভাবে গুছিয়ে নেবেন জয় ও লেখক।

পদবঞ্চিতরা বলেন, শোভন-রাব্বানীর কাছে অনুরোধ ছিলো সংগঠনকে বিতর্ক মুক্ত করুন। যোগ্যদের পদায়ন করুন। পদবঞ্চিতদের কথা ভাবুন। উনারা কখনই আমাদের কথা কানে নেন নি।

আশা করছি, নতুন নেতৃত্ব অবশ্যই এ বিষয়ে নজর দেবেন। অপরাধ বা অন্যায় করে কেউ পার পাবে না, প্রধানমন্ত্রী সে বার্তাই আমাদের দিয়েছেন।

তবে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি বর্তমান কমিটির পদে থাকা নেতারা। তারা বলেন, শোভন-রাব্বানীকে নিয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই। পজেটিভ বা নেগেটিভ কোনোটাই না।

বিজনেস আওয়ার/১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এ

উপরে