ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬


ব্যাংক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করলে জানাতে হবে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে

২০১৯ সেপ্টেম্বর ১৫ ২২:২১:৫০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ অর্থ আত্মসাৎ, দুর্নীতি, জালিয়াতিসহ নানা কারণে কোনো ব্যাংকের কর্মকর্তাকে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করা হলে তা কেন্দ্রীয় ব্যাংককে জানাতে হবে।

রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের শাস্তিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের শাস্তিমূলক ব্যবস্থার তথ্য প্রেরণ বিষয়ে এ-সংক্রান্ত এক সার্কুলার জারি করেছে।

ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনায় সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সামগ্রিক উদ্যোগের সহায়ক কৌশল হিসেবে ২০১২ সালে ‘সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় : জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ প্রণয়ন করা হয়। ব্যাংকিং সেক্টরে কৌশলপত্রটি বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক প্রস্তুতকৃত সফটওয়্যার তৈরি করা হয়েছে, যেখানে প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের শাস্তিমূলক ব্যবস্থার তথ্যাদি সংরক্ষণ করা হয়।

বাংলাদেশ ব্যাংক বলেছে, প্রতিষ্ঠানের কোনো কর্মকর্তাকে অর্থ আত্মসাৎ, দুর্নীতি, জাল-জালিয়াতি, নৈতিক স্খলনজনিত কারণে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত করা হলে শুধুমাত্র তাদের তথ্যাদি (নাম, পিতার নাম, মাতার নাম, জন্মতারিখ, জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, পাসপোর্ট নম্বর, স্থায়ী ঠিকানা, চুড়ান্তভাবে বরখাস্তের তারিখ ও কারণ) দায়িত্বরত কর্মকর্তার মাধ্যমে তিন কার্যদিবসের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংককে পাঠাতে হবে। একই সঙ্গে, আদালত বা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক কোনো কর্মকর্তার বর্ণিত শাস্তি শিথিল বা মওকুফ করা হলে তার সংশ্লিষ্ট ডকুমেন্টসের কপিসহ সচিব বিভাগকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে পাঠাতে হবে। এ ছাড়া ইতোপূর্বে বরখাস্তকৃত কর্মকর্তাদের তথ্যাদি ছাড়া অন্যান্য তথ্য মুছে ফেলতে একটি তালিকা প্রস্তুত করে পরবর্তী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে সচিব বিভাগে প্রেরণ করতে হবে।

ব্যাংকখাতে অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কর্মকর্তা নিয়োগ প্রদানের আগে সংশ্লিষ্ট তথ্যাদি থেকে আবশ্যিকভাবে যাচাই করতে হবে বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/১৫ সেপ্টেম্বর,২০১৯/আরআই

উপরে