ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬


এক নজরে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক

২০১৯ সেপ্টেম্বর ১৬ ০৮:৩৮:২৭

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত দিয়ে যাত্রা শুরু হয় আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীঙ্গের। সুদীর্ঘ এই সময়ে সংগঠনটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে আসীন হয়েছেন ৫৮ জন নেতা।

১৯৪৮ নাইমউদ্দিন আহমেদ (আহ্বায়ক), ১৯৪৮-১৯৫০ দবিরুল ইসলাম–খালেক নেওয়াজ খান, ১৯৫০-১৯৫২ খালেক নেওয়াজ খান–কামরুজ্জামান, ১৯৫২-১৯৫৩ কামরুজ্জামান–এম এ ওয়াদুদ।

১৯৫৩-১৯৫৭ আব্দুল মোমিন তালুকদার–এম এ আউয়াল, ১৯৫৭-১৯৬০ রফিকুল্লাহ চৌধুরী – আযহার আলী (বিদেশে গমন) শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন (ভারপ্রাপ্ত), ১৯৬০-১৯৬৩ শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন–শেখ ফজলুল হক মনি।

১৯৬৩-১৯৬৫ কে এম ওবায়েদুর রহমান–সিরাজুল আলম খান, ১৯৬৫-১৯৬৭ সৈয়দ মাজহারুল হক বাকী–আব্দুর রাজ্জাক, ১৯৬৭-১৯৬৮ ফেরদৌস আহমেদ কোরেশী–আব্দুর রাজ্জাক।

১৯৬৮-১৯৬৯ আব্দুর রউফ (পদত্যাগ)–খালেদ মোহাম্মাদ আলী, ১৯৬৯-১৯৭০ তোফায়েল আহমেদ–আ স ম আব্দুর রব,১৯৭০-১৯৭২ নূরে আলম সিদ্দিকী–শাহজাহান সিরাজ (বহিষ্কৃত), ইসমত কাদির গামা।

এছাড়া, ১৯৭২-১৯৭৩ শেখ শহিদুল ইসলাম–এম এ রশিদ, ১৯৭৩-১৯৭৪ মনিরুল হক চৌধুরী–শফিউল আলম প্রধান (বহিষ্কৃত), মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, ১৯৭৬-১৯৭৭ এম এ আউয়াল (আহবায়ক)।

১৯৭৭-১৯৮১ ওবায়েদুল কাদের–বাহালুল মজনুন চুন্নু,১৯৮১-১৯৮৩ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন–খ ম জাহাঙ্গীর,১৯৮৩-১৯৮৫ আব্দুল মান্নান–জাহাঙ্গীর কবির নানক।

১৯৮৬-১৯৮৮ সুলতান মোহাম্মাদ মন্সুর–মোঃ আব্দুর রহমান, ১৯৮৮-১৯৯২ হাবিবুর রহমান (বহিষ্কৃত), শাহে আলম (কার্যকরী)– আসীম কুমার উকিল, ১৯৯২-১৯৯৪ মাঈনুদ্দিন হাসান চৌধুরী–ইকবালুর রহিম।

১৯৯৪-১৯৯৮ এ কে এম এনামুল হক শামীম–ইসহাক আলী খাঁ পান্না, ১৯৯৮-২০০২ বাহাদুর বেপারী–অজয় কর খোকন, ২০০২-২০০৬ লিয়াকত সিকদার–নজরুল ইসলাম বাবু, ২০০৬-২০১১ মাহমুদ হাসান রিপন–মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন।

২০১১-২০১৫ এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ–সিদ্দিকী নাজমুল আলম, ২০১৮-(চলমান) রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন (অপসারণ), আল নাহিয়ান খান জয় (ভারপ্রাপ্ত)-গোলাম রাব্বানী (অপসারণ), লেখক ভট্টাচার্য (ভারপ্রাপ্ত)।

বিজনেস আওয়ার/১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এ

উপরে