sristymultimedia.com

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


বাজারে এসেছে শীতের সবজি, দামে স্বস্তি

০১:১৫পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : শীতকালীন সবজি আসতে শুরু করেছে রাজধানীর কারওয়ান বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে। আর এতে কিছুটা কমতে শুরু করেছে সবজির দাম।

শনিবার (১২ অক্টোবর) কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শীতকালীন সবজির মধ্যে ফুলকপি ও বাধাকপি ছোটগুলো প্রতি পিস বিক্রি হচ্ছে ১২-১৫ টাকায়, মাঝারিগুলো বিক্রি হচ্ছে ২০-২৫ টাকায়।

গাজর বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা কেজি। কেজি প্রতি শিম বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকা থেকে ৮০ টাকায়। আর বাকি সব ধরনের সবজি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে।

গত সপ্তাহেও এসব সবজি ৫৫-৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। কারওয়ান বাজারে ভালো মানের বরবটি ২০০ টাকা পাল্লা বিক্রি হচ্ছে। এক পাল্লায় পাঁচ কেজি হিসাবে প্রতি কেজির দাম পড়ে ৪০ টাকা। একই দরে বিক্রি হচ্ছে খুচরা বাজারেও।

দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকা আর বিদেশি পেঁয়াজ ৮০ টাকা কেজিতে। কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজিতে। পাইকারি বাজারে এক পাল্লা কচুর লতি বিক্রি হচ্ছে ১৪০-৫০ টাকায়। আর খুচরা বাজরে লতি বিক্রি হচ্ছে ৩৫ টাকা কেজি দরে।

গোল বেগুনের দাম ৪০ টাকা কেজি। আর পাল্লা প্রতি লম্বা কালো বেগুন বিক্রি হচ্ছে ২২৫-৩০ টাকায়। অর্থাৎ ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে বেগুন। কচুর মুখীর পাল্লা ২৪০ টাকা এবং পঞ্চমুখী কচুর পাল্লা ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া চিচিংগা, ঝিঙ্গা, ধুন্দল, ঢেঁড়স ৩০-১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে দেশের বৃহত্তর এ বাজারে। ৪০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে করলা, কাকরোল এবং পটল। মূলা আর শশা বিক্রি হচ্ছে ২৫ টাকা কেজি দরে।

সবচেয়ে কম দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁপে, প্রতি কেজি ১৫ টাকায়। আর পাল্লা বিক্রি হচ্ছে ৬০-৭০ টাকায়।মিষ্টি কুমড়া বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা পিস। চাল কুমড়া (জালি) বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকা পিস।

কারওয়ান বাজারে সবজি কিনতে আসা চাকরিজীবী নারীআবিদা সুলতানা বলেন, বাজারে শীতের সবজি এসেছে তাই বেশ কিছু সবজি কিনলাম। দামেও তুলনা মূলককম।

বিজনেস আওয়ার/১২ অক্টোবর, ২০১৯/এ

উপরে