sristymultimedia.com

ঢাকা, বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬


উত্তাল বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা চলছে

১০:২৬এএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : উত্তাল বুয়েটে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে। সোমবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ৯টায় এ পরীক্ষা শুরু হয়। দুপুর ১২টা পর্যন্ত টানা ৩ ঘণ্টা এই লিখিত পরীক্ষা দেবেন ভর্তিচ্ছুরা।

পরীক্ষা শুরুর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উপচেপড়া ভিড়। বুয়েট ক্যাম্পাসে কোনো অভিভাবককে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। শুধুমাত্র পরীক্ষার্থীরাই ভেতরে প্রবেশ করতে পারছেন।

জানা গেছে, এ বছর ভর্তির জন্য ১৬ হাজার ২৮৮টি আবেদন পড়েছিল। তার মধ্যে থেকে ১২ হাজার ১৬১ শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবেন। আট হাজার ৮৯৬ জন ছাত্র ও তিন হাজার ২৬৫ জন ছাত্রী।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণের মাধ্যমে মেধা অনুযায়ী ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন এক হাজার ৬০ জন। এরমধ্যে এক হাজার পাঁচ জন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ও ৫৫ জন আর্কিটেকচার বিভাগে ভর্তি হতে পারবেন।

আর্কিটেকচার বিভাগে ভর্তির জন্য দুপুর ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত অতিরিক্ত সময় ড্রয়িং পরীক্ষা দিতে হবে। আগামী ৫ নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হবে।

এদিকে সকাল থেকেই ভর্তিচ্ছুদের সহযোগিতার জন্য ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়েছেন বুয়েটের শিক্ষার্থীরা। এ সময় ভর্তিচ্ছুদের মাঝে খাবার পানি ও স্ন্যাকস বিতরণ করেন তারা।

এছাড়াও ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে সহযোগিতার জন্য রোভার স্কাউটের দল রয়েছে। ক্যাম্পাসে একাধিক আঞ্চলিক সংগঠন রয়েছে। অঞ্চল ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের জন্য হেল্প ডেস্ক বসানো হয়েছে।

এর আগে শনিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন পাঁচ দফা দাবি মেনে নেওয়ায় বুয়েট ক্যাম্পাস ক্যাফেটেরিয়ার সামনে আলোচনা করে ১৩ ও ১৪ অক্টোবর আন্দোলন শিথিলের সিদ্ধান্ত নেয় আন্দোলনকারীরা।

পরে একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে নির্ধারিত সময়েই বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। রাতেই আসন বিন্যাসসহ দাফতরিক নানা কাজ সম্পন্ন করেন ভর্তি পরীক্ষা কমিটি।

কয়েকদিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে আন্দোলনে উত্তাল হয়ে ওঠে বুয়েট ক্যাম্পাস। এ সময় ১০ দফা দাবি জানায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

দাবি মানা না হলে ভর্তি পরীক্ষা হতে দেয়া হবে না বলেও হুমকি দেন শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে বুয়েট কর্তৃপক্ষ তাদের দাবি-দাওয়া মেনে নিলে ১৩ ও ১৪ অক্টোবর আন্দোলন শিথিল করে আন্দোলনকারীরা।

বুয়েটে ভর্তির আবেদন শুরু হয় গত ৩১ আগস্ট। আবেদন ও ভর্তি ফি প্রদানের শেষ দিন ছিল ৯ সেপ্টেম্বর। ভর্তি পরীক্ষার যোগ্য প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হয় ১৮ সেপ্টেম্বর এবং আজ (১৪ অক্টোবর) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভর্তি পরীক্ষার ফল আগামী ২৬ অক্টোবর প্রকাশ করা হবে।

বুয়েটে রাসায়িনিক প্রকৌশল বিভাগে ৬০, ধাতব প্রকৌশলে ৫০, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ১৯৫, পানি সম্পদ প্রকৌশলে ৩০, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ১৮০, নৌ স্থাপত্য ও সামুদ্রিক প্রকৌশলে ৫৫, শিল্প ও উৎপাদন প্রকৌশলে ৩০, বৈদ্যুতিক ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশলে ১৯৫, কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশলে ১২০, বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ৩০, স্থাপত্য বিভাগে ৫৫ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগে ৩০টি আসন রয়েছে।

আবেদনকারীদের মধ্য থেকে প্রথম ১২ হাজার জনকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হয়েছে।

বিজনেস আওয়ার/১৪ অক্টোবর, ২০১৯/এ

উপরে