sristymultimedia.com

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


সুপার ওভারে থাকছে না বাউন্ডারির হিসাব

১১:৩৭এএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিকেটের নতুন নিয়ম শুনে পুরোনো ব্যথা আবার আঘাত করতে পারে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটারদের মনে। ২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালে সুপার ওভারে বেশি বাউন্ডারি মারার কারণে তাদের হারিয়ে বিশ্ব জয়ের উল্লাসে মেতেছিল ইংল্যান্ড।

আইসিসি এখন নিময়টা পাল্টে ফেলছে। ওয়ানডে কিংবা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে মূল ম্যাচের পর সুপার ওভারও টাই হলে বাউন্ডারির হিসাব আর দেখা হবে না। যতক্ষণ পর্যন্ত সুপার ওভারের জয়ী নির্ধারণ না হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত চলবে খেলা।

২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনালে প্রথম দেখা গেছে সুপার ওভার। ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডের ফাইনাল ৫০ ওভার শেষে টাই থাকায় সুপার ওভারে যায় খেলা। এক ওভারের সেই লড়াই শেষেও দুই দলের রান সমান।

নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচে বেশি বাউন্ডারি মারার সুবিধা নিয়ে প্রথমবার ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের আনন্দে মাতে ইংল্যান্ড। তবে এখন থেকে ‘বাউন্ডারি কাউন্ট’-এর এই নিয়ম আর থাকছে না।

সোমবার দুবাইয়ে আইসিসির বোর্ড সভায় সুপার ওভারের ফল নির্ধারণ নতুন করে সাজানো হয়েছে। এখন থেকে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল ও ফাইনালে সুপার ওভারে বেশি রান করা দল হবে বিজয়ী, যতক্ষণ পর্যন্ত এক দলের জয় নিশ্চিত না হবে, ততক্ষণ চলবে ১ ওভারের লড়াই।

আইসিসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘সাধারণ নিয়মেই বেশি রান করা দল জিতবে সুপার ওভার। ক্রিকেট কমিটি ও চিফ এক্সিকিউটিভস কমিটি সম্মত হয়েছে, এক দলের জয় নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত চলবে সুপার ওভার। বাউন্ডারির হিসাব আর থাকছে না।’

সুপার ওভার এখন কুড়ি ওভার ও ৫০ ওভারের সব ম্যাচের জন্যই প্রযোজ্য। আগে শুধুমাত্র নকআউট পর্বে ফল নির্ধারণের জন্য হতো ১ ওভারের লড়াই। অবশ্য গ্রুপ পর্বে যদি সুপার ওভার টাই হয়, তাহলেই কেবল ম্যাচের ফল ‘টাই’ হবে। ক্রিকইনফো

বিজনেস আওয়ার/১৫ অক্টোবর, ২০১৯/এ

উপরে