sristymultimedia.com

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬


নতুন থানা হিসাবে যোগ হলো 'দর্শনা'

০৮:৫২এএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (চুয়াডাঙ্গা) : চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার 'দর্শনা' কে আনুষ্ঠানিকভাবে থানা ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার(২১ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে, প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সে অনুসারে চুয়াডাঙ্গার চারটি থানার সাথে নতুন থানা হিসেবে দর্শনাও যোগ হলো।

বহুদিন আগে থেকেই দর্শনা কে থানা হিসেবে ঘোষণা করার দাবিতে দর্শনাবাসী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন নানরকম কর্মসূচি পালন করে আসছিল। তাদের সেই বহুদিনের লালিত স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিলো।

এদিকে, দর্শনা কে আনুষ্ঠানিকভাবে থানা ঘোষণা করার জন্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগরের প্রতি দর্শনাবাসী কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন।

চুয়াডাঙ্গা জেলার ঐতিহ্যবাহী স্থান হলো দামুড়হুদার দর্শনা। চুয়াডাঙ্গা জেলার একমাত্র দর্শনায় হলো থানাবিহীন পৌরসভা, অর্থাৎ দর্শনা পৌরসভা কিন্তু থানা নয়। বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ চিনিকল কেরু এন্ড কোম্পানি এই দর্শনাতেই অবস্থিত।

তাছাড়া দেশের প্রথম রেললাইন এই দর্শনাতেই ১৮৬২ সালে স্থাপন করা হয়। অপরদিকে দর্শনার বিপরীতে রয়েছে ভারতের গেদে রেলস্টেশন।

দর্শনা চেকপোস্ট দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভারতে যাতায়াত করে, কিন্তু দর্শনা থানা না হওয়াতে প্রশাসনিক কাজ কর্মের জন্য জনগণ এবং প্রশাসনের লোকজনের নানারকম ভোগান্তি পোহাতে হতো।

এর আগে বহু এমপি-মন্ত্রিসহ সরকারের উচ্চপদস্থরা বিভিন্ন কাজে দর্শনাতে এসে বিশ্বাসই করতে পারেন না যে দর্শনা থানা নয়। দর্শনা থানা না হলেও এখানে একটা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র আছে, যার ইনচার্জ হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন ইন্সপেক্টর শেখ মাহাবুবুর রহমান।

তিনি জানান, মাত্র ৯-১০ জন নিয়ে আমাদের ডিউটি করতে হয়। তার ভিতরে আবার দুই একজন ছুটিতে থাকে যা আমাদের জন্য কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়াই। জনবল সংকটের কারণে আমি নিজেও হাইওয়েতে ডিউটি করি। তবে থানা হয়ে যাওয়াতে আমাদের আর এই ধরনের সমস্যা হবেনা।

বিজনেস আওয়ার/২২ অক্টোবর, ২০১৯/এন/এ

উপরে