sristymultimedia.com

ঢাকা, সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


ত্বক সম্পর্কে তিনটি ভ্রান্ত ধারণা

০৫:৩৫পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক : ত্বকের যত্নে একটুও এদিক সেদিক হলেই নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। তবে বহু সঠিক তথ্যের মাঝে কিছু ভ্রান্ত ধারণাও ঢুকে যায় সবার মাঝে। যা কিছু সময় উপকারের বদলে ত্বকের জন্য অপকারিতা বহন করে।

এমন তিনটি ভ্রান্ত ধারণা সম্পর্কে জেনে রাখুন:

ঘরে থাকলে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা লাগবে না
ঘরের বাইরে বের হলে রোদের হাত থেকে ত্বককে সুরক্ষিত রাখতে সানস্ক্রিন আবশ্যিক। কিন্তু ঘরে থাকা হলে সানস্ক্রিন ব্যবহারের কোন প্রয়োজনই নেই। এই ভ্রান্ত ধারণাটি বহুলভাবে আমাদের সবার মাঝেই প্রচলিত।

অথচ ক্ষতিকর আল্ট্রাভায়োলেট রে বা ইউভি রশ্মি ঘরের বাইরের তো বটেই, ভেতরেও উপস্থিত। যা থেকে ত্বককে নিরাপদে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে সানস্ক্রিন।

এক্ষেত্রে জেনে রাখা প্রয়োজন, ইউভি রশ্মি দুই প্রকার হয়ে থাকে। ইউভিবি (UVB) রশ্মি ত্বকে রোদেপোড়াভাব তৈরি করে এবং এই রশ্মি ঘরের দেয়ালে এসে আটকে যায়। তবে ঘরে থাকাকালীন সময়ে ইউভিএ (UVA) রশ্মি ত্বকের ক্ষতি করতে পারে এবং মূলত এর জন্যে স্কিন ক্যানসার ও বলীরেখা দেখা দেয়।

তাই ঘরে কিংবা বাইরে সবসময়ই সানস্ক্রিন ক্রিম বা পাউডার ব্যবহার করা প্রয়োজন এবং সানস্ক্রিন কেনার আগে পণ্যের গায়ে এসপিফ (SPF) ৪০-৫০ দেখে কিনতে হবে। এই মাত্রার এসপিএফ ত্বককে ক্ষতিকর ইউভি রশ্মি থেকে ভালো সুরক্ষা দেবে।

একইভাবে ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করতে হবে
প্রতিটি মানুষের ত্বকের ধরন ভিন্ন। একজনের সাথে অন্যজনের ত্বকের ধরণে কোন মিল থাকবে না এবং এটাই স্বাভাবিক। তাই যার ত্বক শুষ্ক ও রুক্ষ তার জন্য যেটা প্রযোজ্য হবে যার ত্বক তৈলাক্ত তার জন্য সেটা প্রযোজ্য হবে না, একইভাবে ত্বককে ময়েশ্চারাইজের ক্ষেত্রেও হবে।

যাদের ত্বক তৈলাক্ত তাদের জন্য লোশনভিত্তিক ময়েশ্চারাইজার ও যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য ক্রিম-বেসড ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। ত্বকের ধরন অনুযায়ী ময়েশাচারাইজারের ধরনও পরিবর্তিত হবে। ত্বকের pH এর মাত্রাকে ব্যলেন্সড রাখতে ও ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ধরে রাখতে ময়েশ্চারাইজার খুবই জরুরি। নতুবা ঘনঘন ব্রণের সমস্যা দেখা দেওয়া শুরু করবে।

মেকআপ ব্যবহার করলেই ব্রণের সমস্যা হয়
এই ধারণাটি আমাদের সবার মাঝেই প্রবলভাবে রয়েছে এবং এতে আমরা বিশ্বাসও করি। কিন্তু আদতে ধারণাটি একেবারেই ভুল। মেকআপ ব্যবহারে কিংবা মেকআপ দীর্ঘসময়ের জন্য ত্বকে থাকলেও কোন সমস্যা হবে বা ব্রণ দেখা দেবে না।

কারণ ফাউন্ডেশন তৈরি করাই হয় এমনভাবে যা ত্বক এবং ত্বকের লোমকূপের উপরিভাগে একটি স্তর তৈরি করে, ত্বকের ভেতরে প্রবেশ করে না। সমস্যাটি একেবারেই অন্যখানে। মেয়াদোত্তীর্ণ, রেপ্লিকা ও অন্যের ব্যবহৃত পণ্য ব্যবহার থেকেই ত্বকের যাবতীয় সমস্যা দেখা দেয়। পিওর ও অথেন্টিক মেকআপ পণ্য ব্যবহারে ত্বকের কোন সমস্যাই তৈরি হবে না।

বিজনেস আওয়ার/২৫ অক্টোবর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে