sristymultimedia.com

ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


'দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ সরকার'

০২:১২পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৯


বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল ক্ষুদা ও দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ গঠন করার। আমরা সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছি। এর মধ্যে বারবার বাধা এসেছে। সব বাধা উপেক্ষা করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ সরকার।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতাকে হত্যা করার পর আমরা দেশে ফিরতে পারিনি। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ তাদের ভালোবাসা দিয়ে আমাকে আওয়ামী লীগের সভাপতি করেছেন। সেই থেকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছি।

দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অসৎ পথে বিরিয়ানি খাওয়ার চেয়ে সৎ পথে নুন ভাত খাওয়াও ভালো।

নব্বই দশকে পাঁচ বছর আর দুই হাজারের পর সাত বছর কাজ করতেক পারি না। সে সময় দেশে জঙ্গিবাদ মাথা চড়া দিয়ে উঠেছিল। সন্ত্রাস ছিল প্রতিদিনকার ঘটনা। আমরা ২০০৯ সালে সরকার গঠন করে আবারও জনগনের জন্য কাজ করছি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের দারিদ্রের হার কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে। এখন মাথা পিছু আয় ২ হাজার ডলারের কাছাকাছি। বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের অবস্থানে এসেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে শিশু কিশোরদের মাঝে এই সেবার মানসিকতা ছড়িয়ে দিতে হবে। শুধু তাই নয় নিজেরাও একটা সুশৃঙ্খল জীবন-যাপন করতে হবে যাতে শিশু কিশোরদের মাঝে সেবার মানসিকতা গড়ে ওঠে এবং তারা উদ্বুদ্ধ হয়।

পেঁয়াজ নিয়ে মানুষের সমস্যা মোকাবিলায় সরকার বিমানে করে পেঁয়াজ আমদানি করছে। এর ফলে মানুষের সমস্যা আর থাকবে না বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, এই সমস্যা যাতে না থাকে তাই কার্গো ভাড়া করে আমরা এখন পেঁয়াজ আনা শুরু করেছি। আগামীকাল পরশুর মধ্যে পেঁয়াজ বিমানে এসে পৌঁছাবে। পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে কাজেই আর চিন্তা নাই।

সরকারপ্রধান বলেন, পেঁয়াজ নিয়ে একটা সমস্যা আছে। প্রায় সব দেশেই পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে এটা ঠিক। কিন্তু আমাদের দেশে কেন কী কারণে এত অস্বাভাবিকভাবে দাম বাড়ছে -জানি না।

এখন আমরা বিমানে করে পেঁয়াজ আমদানি করে নিয়ে আসছি। আমরা দেখতে চাই এধরনের চক্রান্তের সাথে কেউ জড়িত আছে কি না।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় তার সরকারের সফলতা তুলে ধরেন। আগামীতে সরকারের বিভিন্ন কর্মপ্রণালীর বিষয় উল্লেখ করেন। এর আগে বেলা ১১টার দিকে এ সম্মেলন উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন সদস্য সচিব গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু।

এর আগে শনিবার সকাল থেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সম্মেলনস্থলে আসতে শুরু করেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড হাতে স্লোগান দিয়ে মিছিল নিয়ে তাদের আসতে দেখা যায়।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে কেন্দ্র করে পুরো এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রথম অধিবেশনে উদ্বোধনী পর্ব শেষে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে দ্বিতীয় অধিবেশনে নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে।

বিজনেস আওয়ার/১৬ নভেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

পিলার স্থাপন চলছে, দ্রুত বসবে কাঁটাতার
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বেড়া তৈরির কাজ চলছে

উপরে