sristymultimedia.com

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


চট্টগ্রামে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নিহত ৭

১০:২৬এএম, ১৭ নভেম্বর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (চট্টগ্রাম) : চট্টগ্রামের পাথরঘাটা এলাকায় গ্যাসসিলিন্ডার বিস্ফোরণের পর ভবনের দেয়াল ধসে শিশুসহ ৭ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ২৫ জন। রোববার (১৭ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, পাথরঘাটা ব্রিকফিল্ড রোডের কুঞ্জমনি ভবনে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ভবনের একাংশ ভেঙে গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ করছে। আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা ৭ জন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রথম অবস্থায় ৫ জনকে মৃত্যু ঘোষণা করা হয়। পরে আরো দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে, দগ্ধসহ আহত ২৫ জনের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা জসিমউদ্দিন জানিয়েছেন, গ্যাস লাইন বিস্ফোরণে একটি ভবনের দেওয়া ধরে পড়ার খবর শুনে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। দেওয়ালের নিচে মানুষ চাপা পড়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আহতদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিটের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, আহতদের সর্বোচ্চ চিকিৎসার ব্যবস্থা করবো। তাদের যাবতীয় খরচ সিটি করপোরেশন বহন করবে। ৭ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

একটি দুর্ঘটনা অপূরণীয় ক্ষতি। সব কর্তৃপক্ষের পাশাপাশি ভবন মালিক ও ভাড়াটিয়াদের গ্যাস, বিদ্যুতের লাইনে লিকেজ আছে কিনা নিয়মিত তদারকি করতে হবে। ব্যবহারকারীরা সচেতন হলে দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।

শহরটা পরিকল্পিত না। সিডিএ নকশা অনুমোদন করে। নকশা অনুযায়ী ভবন হচ্ছে না। চসিক, ফায়ার সার্ভিস, সিডিএ, জেলা প্রশাসন, কর্ণফুলী গ্যাসের প্রতিনিধি নিয়ে কমিটি গঠন করা হবে। এসময় শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান মেয়র।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোহসিন জানান, রোববার সকালে পাথরঘাটা ব্রিক ফিল্ড রোডের বড়ুয়া বিল্ডিংয়ের নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে। ওই বাড়ি থেকে আহত আরও ৮ কয়েকজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওসি মো. মোহসিন আরও বলেন, গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণের কথা বলেছে ওই বাড়ির বাসিন্দারা। আমরা এখনও বিস্তারিত জানতে পারিনি।

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, পাথরঘাটায় বিস্ফোরণেরপর আহতাবস্থায় প্রথমে ১২ জনকে চমেকে নিয়ে আসা হয়।এর মধ্যে ৭ জনকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহতদের মধ্যে চারজন পুরুষ, দুইজন নারী ও একজন শিশু।

বিজনেস আওয়ার/১৭ নভেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

তিন বিভাগে পেট্রলপাম্প ধর্মঘট
তেল বিক্রি বন্ধ, অচল হয়ে যেতে পারে সড়কপথ

উপরে