sristymultimedia.com

ঢাকা, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


দুপুরে বাংলাদেশ–ভারতের গোলাপি বলের লড়াই

১১:৩৯এএম, ২২ নভেম্বর ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্কঃ লাল বলের লড়াই শেষে আজ শুক্রবার মাঠে গড়াচ্ছে বাংলাদেশ–ভারতের মধ্যকার গোলাপি বলের লড়াই। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে দুপুর ১টা ৩০মিনিট থেকে মুমিনুল হক ও বিরাট কোহলিদের মধ্যকার দিবারাত্রির টেস্ট ম্যাচ শুরু হবে। দেখাবে স্টার স্পোর্টস ও গাজী টিভি।

এই ম্যাচটি ঘিরে পুরো কলকাতা গোলাপি রঙের আভায় আলোকিত। এমন রোমাঞ্চকর ম্যাচটি দেখার অপেক্ষায় ভারত ও বাংলাদেশের কোটি কোটি ক্রিকেটপ্রেমী।

২০১৫ সালে অ্যাডিলেডে প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাঝে। চার বছর পর এক নম্বর টেস্ট দল ভারত এবং নয় নম্বর টেস্ট খেলুড়ে দল হিসেবে দিন-রাতের টেস্ট খেলতে নামছে বাংলাদেশ। দুই দলের অধিনায়কই ম্যাচটি নিয়ে রোমাঞ্চিত। তাদের প্রত্যাশা গোলাপি বলের টেস্টের মাধ্যমে দর্শক মাঠমুখী হবে।

আজ শুক্রবার শুরু হতে যাওয়া দিবা-রাত্রির এই টেস্ট ম্যাচকে ঘিরে চমকপ্রদ অনেক কিছুই থাকছে ইডেনে। ঘণ্টা বাজিয়ে ঐতিহাসিক গোলাপি বলের টেস্টের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার পাশে থাকবেন বিসিসিআইয়ের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এবং শচীন টেন্ডুলকার। সবমিলিয়ে টেস্টের প্রথম দিনে নানা আকর্ষণ থাকছে।

উপমহাদেশের প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট নিয়ে কলকাতাবাসী এতোই রোমাঞ্চিত যে এক সপ্তাহ আগে টেস্টের চারদিনের সমস্ত টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। টেস্ট ক্রিকেটে গ্যালারি ভড়া দর্শকদের সামনে খেলার খুব একটা সুযোগ হয় না ক্রিকেটারদের। কিন্তু ইডেনে গোলাপি বলের টেস্টে সেই সুযোগ পাচ্ছে বিরাট কোহলি ও মুমিনুল হকের দল।

দুই দলই অবশ্য গোলাপি বলের রোমাঞ্চ পাশে রেখে ভালো একটি ম্যাচ খেলতে মুখিয়ে আছে। মুমিনুল হক স্পষ্ট করেই জানালেন তার কথা, ‘গোলাপি বল হোক আর লাল বল হোক, আমাদের নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে। সেটা না খেলতে পারলে ভালো করা সম্ভব নয়। সুতরাং রোমাঞ্চকে পাশে রেখে আমাদের আগের ম্যাচের ভুলগুলো শুধরে নিজেদের সেরাটা দিতে হবে। আমরা সেই কাজগুলো করতেই বেশি মনোযোগী।’

বিজনেস আওয়ার/২২ নভেম্বর, ২০১৯/আরআই

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে