businesshour24.com

ঢাকা, রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ৫ মাঘ ১৪২৬


আড়াই কিলোমিটারের বেশি দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতু

০২:৩০পিএম, ২৬ নভেম্বর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় জাজিরা প্রান্তে বসেছে পদ্মা সেতুর ১৭তম স্প্যান (৪ডি)। মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) দুপুর ১টা ৪০ মিনিটের সময় স্প্যানটি ২২ ও ২৩ নম্বর পিলারের বসানো হয়। এই স্প্যানটি বসানোর ফলে দৃশ্যমান হয়েছে পদ্মা সেতুর ২ হাজার ৫৫০ মিটার। অর্থাৎ আড়াই কিলোমিটারেরও বেশি।

স্প্যানটি আগেই মাওয়া কনেস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে এনে জাজিরা প্রান্তে পিলারের কাছে বিশেষ কাঠামোর ওপর রাখা হয়েছিল। সকাল ৯টার দিকে স্প্যানটি ২২ ও ২৩ নম্বর পিলারের কাছে নিয়ে আসা হয়। পরে বেলা ১১টার দিকে পিলারের ওপর ওঠানোর কাজ শুরু হয়। দুপুর ১টা ৪০ মিনিটের সময় স্প্যানটি পিলারের ওপর তোলার কাজ শেষ হয়।

এ ব্যাপারে পদ্মা সেতু প্রকল্পের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. হুমায়ন কবীর বলেন, ২২ ও ২৩ নম্বর খুঁটিতে বসেছে এই স্প্যানটি। এর ফলে সেতুর ২ হাজার ৫৫০ মিটার দৃশ্যমান হয়েছে। আগামী ৪ অথবা ৫ ডিসেম্বর ১৭ ও ১৮ নম্বর খুঁটিতে বসার কথা রয়েছে ১৮তম স্প্যান। এখন থেকে অল্প সময়ের ব্যবধানে স্প্যান উঠতে থাকবে।

তিনি আরও জানান, ইতোমধ্যে চীন থেকে আরও দুটি স্প্যান বাংলাদেশে পৌঁছেছে। সমুদ্রপথে গত ১৯ নভেম্বর বিকেলে স্প্যান দুটি মংলা বন্দরে এসে পৌঁছায়। সব চ্যালেঞ্জ জয় করে এগিয়ে যাচ্ছে মূল সেতুর কাজ। পিলারের পাশাপাশি, স্প্যান, রোডওয়ে ও রেলওয়ের কাজও এগিয়ে চলছে।

পুরো সেতুতে ২ হাজার ৯৩১টি রোডওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে। আর রেলওয়ে স্ল্যাব বসানো হবে ২ হাজার ৯৫৯টি। সেতুর ৪২টি পিলারের মধ্যে পুরো প্রস্তুত এখন ৩৩টি। ৪২টি পিলারের উপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে। প্রতিটি স্প্যানের দৈর্ঘ্য ১৫০ মিটার।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুর ১টার দিকে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে ১৬তম স্প্যান (৩ডি) ১৬ ও ১৭ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হয়েছে। ওই স্প্যানটি বসানোর মধ্য দিয়ে সে সময় সেতুর ২৪০০ মিটার দৃশ্যমান হয়। স্প্যান বসার পরে কাজের গতি বেড়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর পদ্মা সেতুতে প্রথম স্প্যান বসানো হয়। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে স্বপ্নের পদ্মাসেতু দিয়ে যানবাহন চলাচল করবে বলে আশা করছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার।

বিজনেস আওয়ার/২৬ নভেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে