businesshour24.com

ঢাকা, রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ৫ মাঘ ১৪২৬


দুর্নীতি মামলায় খালেদার ভাগ্য নির্ধারণ ৫ ডিসেম্বর

১০:৫৫এএম, ২৮ নভেম্বর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ফের পেছাল। পরবর্তী শুনানি ৫ ডিসেম্বর ধার্য করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের ছয় সদস্যের বেঞ্চে এ শুনানি হয়।

এই সময়ের মধ্যে তার শারীরিক অবস্থার সবশেষ প্রতিবেদন দিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে প্র্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ বেঞ্চে এ শুনানি শুরু হয়।

শুনানিতে প্রধান বিচারপতি জানান, হাইকোর্টের গেটে মিছিল হয়েছে, গাড়ি ভাঙচুরের কারণে আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর ঢাকার বিশেষ জজ আদালতের রায়ে বেগম জিয়া কারাগারে রয়েছেন।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, এ জে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল প্রমুখ।রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ। ওই আদেশের বিরুদ্ধে তার আইনজীবীরা আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় চৌদ্দশ' এক পৃষ্ঠার আপিল আবেদন দাখিল করেন।

খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে দেশের সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগের সংশ্নিষ্ট শাখায় গত ১৪ নভেম্বর আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। পরে ১৭ নভেম্বর আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত আবেদনটি নিষ্পত্তির জন্য প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন। এরই ধারাবাহিকতায় জামিন আবেদনটি আপিল বিভাগে কার্যতালিকাভুক্ত হয়।

বিজনেস আওয়ার/২৮ নভেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে