businesshour24.com

ঢাকা, বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৬


রোজার ঈদে তিন নায়কের টক্কর জমবে

১২:৫৯পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক : ছবি মুক্তির ক্ষেত্রে বড় উপলক্ষ হিসেবে থাকে দুই ঈদ। ঈদুল ফিতর আসতে এখনো কয়েক মাস বাকি। তবে এরই মধ্যে ঈদে মুক্তির ছবি নিয়ে হিসাবনিকাশ শুরু হয়ে গেছে ফিল্ম পাড়ায়। তাই রোজার ঈদে তিন নায়কের টক্কর জমবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্ঠরা।

জানা গেছে, সামনের ঈদে শাকিব খানের ছবি মুক্তি পাবে, পাশাপাশি আরিফিন শুভ আর সিয়ামের ছবিও মুক্তি পাবে। যদি সব ঠিক থাকে, তাহলে সামনের ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির সংখ্যা ৭–এ গিয়ে দাঁড়াবে। যা নিকট অতীতে দেখা যায়নি।

রোজার ঈদ উপলক্ষ করে এখন পর্যন্ত যেসব ছবির নাম সবচেয়ে বেশি শোনা যাচ্ছে তার মধ্যে আছে মিশন এক্সট্রিম, শাহেনশাহ, স্বপ্নবাজি, শান, বিক্ষোভ ও মিশন সিক্সটিন। শাকিব খানের নাম ঠিক না হওয়া আরেকটি ছবিও ঈদে মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে।

ঈদে নতুন কোন ছবিটি মুক্তি পাবে তা নিয়ে শাকিব খান মুখ না খুললেও নানা সূত্রে জানা গেছে, বড় বাজেট এবং বেশ বড় আয়োজনে শাকিবকে নিয়ে ঈদে আসবে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিএম ফিল্মস।

প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার কৌশিক হোসেন তাপস বলেন, শাকিব খানকে নিয়ে আমরা রোজার ঈদে পরিকল্পনা করেই এগোচ্ছি। ছবির চিত্রনাট্যের কাজ চলছে। শাকিব খান গল্পটি শুনেছেন, পছন্দও করেছেন।

এ ব্যাপারে শাকিব খান বলেন, ঈদের ছবির পরিকল্পনা এখনো ঠিক হয়নি। তবে বেশ বড় আয়োজনে ঈদের ছবির প্রস্তুতি নিচ্ছি। দর্শকদের জন্য ধামাকা কিছু অপেক্ষা করছে। শেষ পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকুন।

অনেকগুলো ছবি একসঙ্গে মুক্তি পাওয়ার ব্যাপারে আরিফিন শুভ বলেন, ছবিপ্রেমী মানুষেরা শাকিব ভাইয়ের ছবি যেমন দেখতে চাইবেন, তেমনি সিয়াম ও আমার ছবির ট্রেলার দেখে ভালো লাগলে তাঁরা প্রেক্ষাগৃহে ছুটবেন।

ঈদ আমাদের সবচেয়ে বড় উৎসব। তরুণদের মধ্যে সিয়ামের বড় একটা ফ্যান গ্রুপ আছে। শাকিব ভাইয়ের তো আছেই, আমারও কিছু আছে। সবারই মধ্যে টক্কর তখনই আসবে, যখন খেলার মাঠ থাকবে। আমাদের তো খেলার মাঠই নেই। খেলার মাঠ থাকলেই টক্কর হতো। আজকে যদি হাজারখানেক প্রেক্ষাগৃহ থাকত, তাহলে বলা যেত টক্কর।

এ ব্যাপারে সিয়াম বলেন, কিছু বিষয় না চাইতেই হয়ে যায়। কারণ, সবাই চান বড় উৎসবে ছবি মুক্তি দিতে। বিশাল দর্শকশ্রেণি ধরতে চান। তবে প্রতিযোগিতা হোক, এ ক্ষেত্রে ডিস্ট্রিবিউশন খুব গুরুত্বপূর্ণ। তবে আমি চাই সবার ছবিই যেন দর্শকেরা দেখতে পারেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বলেন, শুনেছি ঈদে সাতটি ছবি মুক্তির জন্য প্রস্তুত। তবে এক ঈদে একসঙ্গে এত ছবি মুক্তি না দিলে ভালো হয়, কারণ এসব ছবি মুক্তির জন্য এখনো প্রস্তুত নই আমরা।

খোরশেদ আলম খসরু বলেন, আমাদের দেশে প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা অনেক কম। যেহেতু প্রেক্ষাগৃহ কম তাই একেক নায়কের একেকটি ছবি মুক্তি পেলেই সবচেয়ে ভালো হয়। এতে ব্যাবসাও ভালো হবে। দর্শক দেখেও আনন্দ পাবে।

তিনি বলেন, শাকিবকে নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই, সারা দেশে তাঁর বিশাল ভক্তগ্রুপ আছে। শুভ তো ঢাকা অ্যাটাক দিয়ে নিজেকে প্রমাণ করেছেন। সিয়ামেরও একটা ভক্তগ্রুপ তৈরি হয়ে গেছে। তবে তিন নায়কের টক্করটা ভালোই জমবে। সবচেয়ে বেশি লাভবান হবেন দর্শক।

বিজনেস আওয়ার/০৩ ডিসেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে