ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬


চুয়াডাঙ্গায় জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে পরীক্ষার ফল ঘোষণা

০৯:০৬পিএম, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক (চুয়াডাঙ্গা): জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করে ভাষা শহীদদের চরমভাবে অবমাননা করল চুয়াডাঙ্গা সদরের তিতুদহ ইউনিয়নের গিরিশনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও স্কুলের শিক্ষকরা। গত ৩০ ডিসেম্বর (সোমবার) এ ঘটনা ঘটে।

শহীদ মিনার বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য অত্যন্ত শ্রদ্ধা এবং ভক্তির একটি নিদর্শন। প্রতিবছর একুশে ফেব্রুয়ারিতে বাঙালি জাতি খালি পায়ে প্রভাত ফেরী করে শহীদ মিনারে এসে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং সারাবছর সেই ভক্তি মনে লালন করে।

প্রতিদিন ফুল না দিলেও শহীদ মিনারকে অন্য রকম দৃষ্টিতে দেখে কারণ এই ভাষা শহীদদের জন্যই আমরা আজ বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারি। সারা বিশ্বের যে কোন জায়গায় যেয়ে বুক ফুলিয়ে বলতে পারি আমরা বাংলাদেশের অধিবাসী আমাদের মাতৃভাষা বাংলা। কিন্তু সেই জাতিকে চরমভাবে কলঙ্কিত করলো চুয়াডাঙ্গা সদরের গিরিশনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও শিক্ষকমন্ডলী।

জুতা পায়ে শহীদ মিনারে উঠে বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করার সময় উপস্থিত ছিলেন গিরিশনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি হায়দার মল্লিক, স্কুলের প্রধান শিক্ষক নূর মোহাম্মদ, সহকারী শিক্ষক জিয়া শাহ আলম ও ধর্মীয় শিক্ষক আমিরুল ইসলাম সহ অন্যরা।

তাদের এই ধরনের কাজে শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী তীব্র সমালোচনা করেছে এবং বলেছে শিক্ষকদের দ্বারা যদি এই ধরনের কাজ হয় তাহলে ছাত্রছাত্রীরা তাদের দ্বারা কি শিক্ষা নিতে পারে? এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের আশু দৃষ্টি কামনা করেন এলাকার সচেতন মহল।

বিজনেস আওয়ার/৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে