করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
৪৯
১৯
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
১৭৭
৭৪১০৩০
৩৫১১৪

ঢাকা, বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬


সানাউলকে ডিএসইর এমডি নিয়োগে বিএসইসির অনুমোদন

০৫:৪০পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) এর সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কাজী সানাউল হককে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) এমডি নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। বুধবার (২২ জানুয়ারি) বিএসইসির ৭১৫তম কমিশন সভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বিএসইবির নির্বাহী পরিচালক মো: আনোয়ারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

এছাড়া বিএসইসির আজকের সভায়চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) পদে মামুন-উর-রশিদকে নিয়োগের প্রস্তাবও অনুমোদন করা হয়েছে।

এর আগে গত ৯ জানুয়ারি ডিএসইর পরিচালকদের সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে সানাউল হককে এমডি হিসেবে নির্বাচন করা হয়। একইদিনে পর্ষদের নির্বাচনের বিষয়টি অনুমোদন চেয়ে কমিশনে চিঠি দেয় ডিএসই। এরইআলোকে কমিশন আজ সানাউলের নিয়োগের অনুমোদন দিল।

গত ৯ জানুয়ারি ডিএসইর পর্ষদ সভায় উপস্থিত ১০ জন পরিচালকদের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ ৬ জনের সম্মতিতে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়। যার নিয়োগে ৩ জন বা ৭৫ শতাংশ শেয়ারহোল্ডার পরিচালকসহ ৪ জন সম্মতি দেননি।

উল্লেখ্য, প্রায় ৬ মাস ধরে ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ছাড়া চলছে ডিএসই। এর আগে দুই দফায় বিজ্ঞপ্তি দিয়েও যোগ্য কাউকে পাওয়া যায়নি। দুই দফায় বিজ্ঞপ্তি দিয়েও যোগ্য এমডি না পাওয়ায় ডিএসই সময় নিয়ে গত ১০ ডিসেম্বর তৃতীয় দফায় এমডির খোঁজে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। এতে আগ্রহী প্রার্থীদেরকে গত ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে জীবনবৃত্তান্তসহ আবেদন পাঠাতে বলা হয়। এতে ২৪ জন আবেদন করেন। এরমধ্য থেকে ৬ জনকে সাক্ষাতকারে ডাকা হয়।

জানা গেছে, চলতি বছরের ১১ জুলাই ডিএসইর এমডি পদ শূন্য হয়। ওই পদ পূরণে নতুন এমডির খোঁজে গত ৭ আগস্ট বিজ্ঞপ্তি দেয় ডিএসই কর্তৃপক্ষ। এতে আগ্রহী প্রার্থীদেরকে ১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আবেদন করতে বলা হয়েছিল। যেখানে ১৬ জন আবেদন করেছিলেন। তবে ওই ১৬ জনের মধ্যে কাউকেই যোগ্য মনে করেনি ডিএসইর পর্ষদ এবং নমিনেশন অ্যান্ড রিমিউনারেশন কমিটি (এনআরসি)। এরপরে গত ৫ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় দফায় এমডির খোজেঁ বিজ্ঞপ্তি দেয় ডিএসই। এক্ষেত্রে আবেদন করেছিল ৩ জন। অর্থাৎ দুই দফায় ১৯ জন ডিএসইর এমডি পদে নিয়োগের জন্য আবেদন করেছিল।

দুই দফায় আবেদনকারীদের মধ্য থেকে গত ২ অক্টোবর ৭ জন প্রার্থীকে সাক্ষাতকারের জন্য ডাকা হয়। পরবর্তীতে ৭ জনের মধ্যে ৩ জনকে নিয়ে শর্ট লিস্ট করা হয়। যাদেরকে গত ৬ অক্টোবর ডিএসইর পর্ষদ ডাকে। তবে ওই ৩ জনের মধ্যেও কাউকে চূড়ান্ত নিয়োগের জন্য যোগ্য মনে করেনি পর্ষদ। যাতে যোগ্য এমডির খোঁজে আবারও বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ৬ অক্টোবরের পর্ষদ সভায়। যা গত ১০ ডিসেম্বর প্রকাশ করা হয়।

উল্লেখ্য, ব্যবস্থাপনা থেকে মালিকানা পৃথকীকরণে ডি-মিউচ্যুয়ালাইজেশন স্কিমের পর দ্বিতীয় ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে ২০১৬ সালের ২৯ জুন নিয়োগ পান কে এ এম মাজেদুর রহমান। যার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ১১ জুলাই। তারপর থেকেই পদটি খালি রয়েছে। ডিএসইর প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) আবদুল মতিন পাটোয়ারী বর্তমানে স্টক এক্সচেঞ্জটির ভারপ্রাপ্ত এমডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

বিজনেস আওয়ার/২২ জানুয়ারি, ২০২০/আরএ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

মঙ্গলবার শেয়ারবাজারে ১৬ ব্যাংকের বিনিয়োগ
শেয়ারবাজারে ধীরে ধীরে ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়ছে

উপরে