করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
৫৪
২৬
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
১৮০
৮৫৮৭৮৫
৪৪২০২
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

বাজার মূলধন বেড়েছে ২৫ হাজার কোটি টাকা

বিদায়ী সপ্তাহে লেনদেন-সূচকে বড় উত্থান

১১:৫০এএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ ব্যাপক পতন এবং দ্বিতীয় সপ্তাহও পতন হয়েছে শেয়ারবাজারে। তবে বিদায়ী বা তৃতীয় সপ্তাহ বড় উত্থান হয়েছে শেয়ারবাজারে। বিদয়ী সপ্তাহে উভয় শেয়ারবাজারে সূচক ও লেনদেন বড় উত্থান হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টাকার পরিমাণে লেনদেন ৭২ শতাংশ এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন ২০০ শতাংশ বেড়েছে। ডিএসইতে ৯২ শতাংশ এবং সিএসইতে ৮৭ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। আর ডিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহটিতে বাজার মূলধন সাড়ে ২৫ হাজার কোটি টাকা বেড়েছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, বিদায়ী সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ২ হাজার ২৬৫ কোটি ৭৮ লাখ ৯৯ হাজার ৮৬৯ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ৯৪৫ কোটি ৫ লাখ ৯১ হাজার ৯৪৮ টাকা বা ৭১.৫৬ শতাংশ বেশি হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৩২০ কোটি ৭৩ লাখ ৭ হাজার ৯২১ টাকার।

বিদায় সপ্তাহের প্রথম দিন লেনদেন শুরু আগে ডিএসইর বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ১৯ হাজার ৩৭০ কোটি ৮৪ লাখ ৫৮ হাজার টাকায়। আর বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়িযেছে ৩ লাখ ৪৫ হাজার ৬৯ কোটি ৪২ লাখ ২৪ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর বাজার মূলধন ২৫ হাজার ৬৯৮ কোটি ৫৭ লাখ ৬৬ হাজার টাকা বা ৮ শতাংশ বেড়েছে। এর আগের সপ্তাহে বাজার মূলধন ৪ হাজার ২৭৯ কোটি ১৮ লাখ ২৩ হাজার টাকা বা ১.৩২ শতাংশ কমেছিল।

ডিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৪৫৩ কোটি ১৫ লাখ ৭৯ হাজার ৯৭৩ টাকার। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ২৬৪ কোটি ১৪ লাখ ৬১ হাজার ৫৮৪ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গড় লেনদেন ১৮৯ কোটি ১ লাখ ১৮ হাজার ৩৮৯ টাকা বেশি হয়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৬৪ পয়েন্ট বা ৮.৭৭ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৫১৪ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৯৫ পয়েন্ট বা ১০.১৩ শতাংশ এবং সিএসই-৩০ সূচক ১৩৭ পয়েন্ট বা ৯.৭৩ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৩৫ পয়েন্ট ও ১ হাজার ৫৪৩ পয়েন্টে। ডিএসইতে চালু হওয়া নতুন সূচক সিডিএসইটি ৭৮ পয়েন্ট বা ৯.২৩ শতাংশ বেড়ে ৯২৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৫৮টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ৩২৮টি বা ৯২ শতাংশের, কমেছে ২৩টির বা ৬ শতাংশের এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৭টির বা ২ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহজুড়ে ১৬৫ কোটি ৫৯ লাখ ৬ হাজার ১১৭ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৫৫ কোটি ২৪ লাখ ৮৪ হাজার ৫৭৬ টাকার। এ হিসাবে সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন ১১০ কোটি ৩৪ লাখ ২১ হাজার ৫৪১ টাকা বা ২০০ শতাশ বেড়েছে।

বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১১৪৩ পয়েন্ট বা ৯.০৭ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৭৪৪ পয়েন্টে। এছাড়া সিএসসিএক্স ৭০২ পয়েন্ট বা ৯.২০ শতাংশ, সিএসই-৩০ সূচক ৯৯৮ পয়েন্ট বা ৯.১৮, সিএসই-৫০ সূচক ৯১ পয়েন্ট বা ৯.৮১ শতাংশ এবং সিএসআই ৮৫ পয়েন্ট বা ১০.৬১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ৮ হাজার ৩৩৭ পয়েন্ট, ১১ হাজার ৮৬৪ পয়েন্ট, ১ হাজার ১৬ পয়েন্ট এবং ৮৮৭ পয়েন্টে।

বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইতে মোট ৩০৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের হাত বদল হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২৬৫টির বা ৮৭ শতাংশ, দর কমেছে ২৭টির বা ৯ শতাংশ এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ১২টির বা ৪ শতাংশ।

বিজনেস আওয়ার/২৪ জানুয়ারি, ২০২০/এস

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

মঙ্গলবার শেয়ারবাজারে ১৬ ব্যাংকের বিনিয়োগ
শেয়ারবাজারে ধীরে ধীরে ব্যাংকের বিনিয়োগ বাড়ছে

উপরে