করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
৫৪
২৬
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
১৮০
৮৫৮৭৮৫
৪৪২০২
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬


ব্যাটিংয়ে লিটন-সৌম্যর চেয়েও পিছিয়ে তামিম!

১০:৪৪পিএম, ২৫ জানুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : দেশের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। সেরা রান সংগ্রাহক। সর্বোচ্চ সেঞ্চুরিরও মালিক। একসময় হার্ডহিটিংয়ের জন্য 'বুম বুম তামিম' নামে পরিচিত ছিল। এরপর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তিনি দায়িত্বের সঙ্গে ইনিংস গড়ায় মনযোগ দেন।

টেস্ট-ওয়ানডেতে তার ব্যাটিং নিয়ে কথা না থাকলেও ক্রিকেটের ক্ষুদ্র ফরম্যাট টি-টোয়েন্টিতে সমালোচকদের নিশানায় তামিম। ইনিংস গড়তে এতটাই সময় নেন যে, তার ব্যাটিংটা টি-টোয়েন্টির সঙ্গে যায় না! চলতি পাকিস্তান সফরেও একই রূপে দেখা দিয়েছেন তামিম।

গতকাল শুক্রবার প্রথম টি-টোয়েন্টিতে তামিম ইকবালের সংগ্রহ ৩৪ বলে ৩৯ রান। স্ট্রাইকরেট ১১৪.৭০। আজ দ্বিতীয় ম্যাচে তার সংগ্রহ ৫৩ বলে ৬৫ রান, স্ট্রাইক রেট ১২২.৬৪। ১৮ ওভার পর্যন্ত যে ব্যাটসম্যান উইকেটে ছিলেন, তার এমন স্ট্রাইক রেট নিয়ে সমালোচনা হবেই। দুটি ম্যাচেই বাংলাদেশ ছোটখাট স্কোর করে হেরেছে। আজ তো মাত্র ১৩৬ রান তুলে ৯ উইকেটের পরাজয়ে খুঁইয়েছে সিরিজ। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ গতকাল উইকেটের দোষ দিলেও আজ ব্যাটসম্যানদেরই দোষ দিয়েছেন। যদিও তামিম তার প্রশংসা পেয়েছে।

টি-টোয়েন্টির ভাষা এখনও অধিকাংশ বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা বুঝে উঠতে পারেনি। মারমার কাটকাট ব্যাটিং দেখা তো রীতিমতো বিরল ঘটনা। তামিম ইকবালের এমন টি-টোয়েন্টি ব্যাটিং নিয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএল থেকেই আলোচনা হচ্ছে। বাংলাদেশের শীর্ষ ওপেনার তামিম ইকবালের গত পাঁচ বছরের টি-টোয়েন্টি স্ট্রাইক রেট ১২৫.৪৬! যেখানে স্বদেশি দুই তরুণ ওপেনার লিটন দাস আর সৌম্য সরকার খেলছেন যথাক্রমে ১৩৬.৪৬ এবং ১২২.২০ স্ট্রাইকরেটে। এই দুজনকে এখন ৩ নম্বর থেকে ৭-৮ নম্বরেও খেলতে হয়!

কমপক্ষে ১০ টি-টোয়েন্টি খেলা বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ স্ট্রাইকরেটের প্রথম দুটি স্থান লিটন আর সৌম্যর। গোটা বিশ্বের দিকে তাকালে লজ্জাটা আরও বেড়ে যাবে। ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুলের স্ট্রাইকরেট ১৪৮.২৭। রোহিত শর্মার স্ট্রাইক রেট ১৩৮.২। অ্যারন ফিঞ্চের ১৫৬.৫, ডেভিড ওয়ার্নারের ১৪৮.৮, জেসন রয়ের ১৪৫.১১, জনি বেয়ারস্টোর ১৩৪। আরেকটা তথ্য দিলে বাংলাদেশের সঙ্গে বাকি বিশ্বের পার্থক্যটা পরিস্কার হয়ে যাবে। সেটি হলো, ১২৮.২৭ স্ট্রাইকরেটে ব্যাট করেও বাদ পড়েছিলেন বিধ্বংসী ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ান! তাহলে কীভাবে টি-টোয়েন্টিতে এগোবে বাংলাদেশ?

বিজনেস আওয়ার/২৫ জানুয়ারি, ২০২০/এ এইচ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে