করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
১৬৪
৩৩
১৭
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
২১১
১৪,২৯,৪৩৭
৮২,০৭৩
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬


ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান অবসায়নে ক্ষতিপূরণ সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা

০১:০৩পিএম, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ কোনো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান অবসায়িত (বন্ধ) হলে প্রত্যেক আমানতকারী সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা পর্যন্ত ক্ষতিপূরণ পাবেন। ওই প্রতিষ্ঠানের কোনো গ্রাহকের একাধিক অ্যাকাউন্টে এক লাখ টাকার বেশি থাকলেও তিনি সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকাই পাবেন।

এমন বিধান অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে চূড়ান্ত করা হয়েছে ‘আমানত সুরক্ষা আইন-২০২০’ এর খসড়া। অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ এ খসড়ার ওপর সংশ্লিষ্টদের মতামত চেয়েছে। অর্থনীতিবিদদের মতে আইনের খসড়াটি বড় আমানতকারীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পারবে না।

ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত রাখার ওপর এর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে। এ প্রসঙ্গে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক অর্থ উপদেষ্টা ড. এবিএম মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, আমানত সুরক্ষা আইনে ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অবসায়ন হলে এক লাখ টাকার বেশি ক্ষতিপূরণ পাবেন না গ্রাহক।

এ ক্ষতিপূরণ খুবই কম। এতে গ্রাহকরা ধীরে ধীরে আমানত তুলে নেবেন। কারণ একজন গ্রাহকের ৫ লাখ টাকার এফডিআর আছে ব্যাংকে। ওই ব্যাংক অবসায়ন হলে ৪ লাখ টাকা সংশ্লিষ্ট গ্রাহকের ক্ষতি হবে।

এ আইনটি সঠিক হচ্ছে না। এতে ব্যাংকগুলোতে আমানতের প্রবাহ কমবে। আর আমানত কমলে ঋণ দেয়ার ক্ষমতাও কমবে ব্যাংকের। আর ঋণ দিতে না পারলে বিনিয়োগ হবে না। যা অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব সৃষ্টি করতে পারে।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, এ ধরনের বিধান কেন্দ্রীয় ব্যাংকে আগেই ছিল। কোনো ব্যাংক অবসায়ন হলে ওই ব্যাংকের গ্রাহকদের ক্ষতিপূরণ ১ লাখ টাকা দেয়ার বিধান ছিল।

এ আইনটি মূলত ছোট আমানতকারীদের সুরক্ষা দেয়ার জন্য। একজন গ্রাহকের ১ কোটি টাকা ব্যাংকে থাকলে সে ক্ষেত্রে অবসায়ন হলে ওই গ্রাহকের পুরোটা ক্ষতি হচ্ছে।

সুরক্ষা আইনে তার কোনো লাভ হচ্ছে না এমন প্রশ্নে এ অর্থনীতিবিদ বলেন, বড় গ্রাহকরা তার টাকার সুরক্ষার জন্য নিজেরা কিছু করছেন না। এটি ব্যাংকের পক্ষ থেকে বীমা করে করা হচ্ছে। যে কারণে বড়দের নিয়ে ব্যাংকগুলো সেভাবে ভাবছে না।

বিজনেস আওয়ার/ ৪ ফেব্রুয়ারি,২০২০/আরআই

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে