ঢাকা, সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬


সিটি ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান ইশরাক-তাবিথের

০১:৩২পিএম, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপির দুই মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেন ও তাবিথ আউয়াল। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) গুলশান ইমানুয়েল কনভেনশন সেন্টারে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিক ফল প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেন দুই প্রার্থী।

নির্বাচনের দিন কেন্দ্র দখল, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে ভোট জালিয়াতি, এজেন্ট বের করে দেয়া, অভিযোগ দেয়া সত্ত্বেও নির্বাচন কমিশনের নীরব ভূমিকার কথা তুলে ধরেন তারা। এসময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে ইশরাক বলেন, আমি নগরবাসীকে কথা দিয়েছিলাম, তাদের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেব। বাসযোগ্য একটা শহর উপহার দেব। কিন্তু শাসক শ্রেণির ভোট চুরি, ভোট কারচুপি, ভয়ভীতি প্রদর্শনের মাধ্যমে ভোটারদেরকে ভোটকেন্দ্র থেকে দূরে রাখাসহ নানা কারণে আমি আমার কথা রাখতে ব্যর্থ হয়েছি। তবে আগামীতে আবার নগরবাসীর ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য মাঠে আসব।’

তিনি বলেন, ‘আমি দেখেছি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এবং প্রিসাইডিং অফিসারদের অনেকেই চেয়েছেন সুষ্ঠু নির্বাচন হোক। কিন্তু তারা শাসক শ্রেণির অন্যায় নির্দেশের কাছে সম্পূর্ণ অসহায় ছিলেন। তারা নিরুপায় হয়ে সরকারের অন্যায় নির্দেশ মেনে চলতে বাধ্য হয়েছেন।

নির্বাচনের দিন নানা অনিয়ম, কারচুপি, পুলিশি হয়রানির অভিযোগের পক্ষে সংগৃহিত তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন তাবিথ আউয়াল। পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে সাংবাদিকদের সামনে এসব তুলে ধরেন তিনি।

তাবিথ আউয়াল বলেন, নির্বাচনের দিন কেবল বিএনপির নেতাকর্মী বা সমর্থকরা হামলার শিকার হননি। ওই দিন নির্বাচনের সংবাদ সংগ্রহের কাজে নিয়োজিত বেশ কয়েকজন সাংবাদিক আওয়ামী সন্ত্রাসীদের হাতে মার খেয়েছেন। সাংবাদিকদের মারার অপরাধে কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। একটি সভ্য দেশে এটা হতে পারে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, জনগণের ওপর আস্থা নেই বলে নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিয়ে একদলীয় শাসন কায়েম করেছেন সরকার। এর নমুনা ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন। কারচুপির এই ফলাফল বাতিল করে আমরা পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, আবদুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইঁয়া, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দফতর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু।

বিজনেস আওয়ার/০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে