করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
২১৮
৩৩
২০
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
২১১
১৪,২৯,৪৩৭
৮২,০৭৩
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬


নতুন ফল আনার প্রত্যয় মুমিনুলের

০৪:৫৭পিএম, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : সবশেষ ২০১৫ সালে বাংলাদেশে টেস্ট খেলতে এসে একটা ধাক্কা খেয়েছিল পাকিস্তান। সেবার দারুণ খেলে একটি টেস্টে ড্র করেছিল বাংলাদেশ। সময়ের হিসেবে প্রায় পাঁচ বছর পর টেস্টে মুখোমুখি হচ্ছে দু'দল। নতুন বছরে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট। ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণে নতুন ফল আনার প্রত্যয় বাংলাদেশ দলের।

গেল বছরটা টেস্টে খুবই বাজে কেটেছে বাংলাদেশের। ২০১৮ সালের শেষটায় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ঘরের মাঠে টেস্টে ধবলধোলাই করেছিল টাইগাররা। এরপর নিউজিল্যান্ডে হার, ঘরের মাঠে আফগানদের বিপক্ষে ধসে যাওয়া। আর সবশেষ ভারতের মাটিতে টেস্ট খেলতে গিয়ে লজ্জায় ডুবেছে টিম টাইগাররা।

নতুন কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বাংলাদেশ দলকে এখনও ভালো উপহার দিতে পারেননি। রাওয়ালপিন্ডিতে তাই আরেকটি মুলতান ফিরিয়ে আনা এবং শেষ হাসি হাঁসাই লক্ষ্য বাংলাদেশ দলের। এই মাঠ আবার পাকিস্তান দলের জন্য অপয়া। তিনটি আন্তর্জাতিক টেস্ট খেলে স্বাগতিকরা তিনটিতেই হেরেছে সেখানে।

১৯৯৮ সালে অস্ট্রেলিয়া। এরপর দুই বছর পরে শ্রীলংকা এবং ২০০৪ সালে ভারত পিন্ডি টেস্টে জয় তুলে নেয়। ১৬ বছর পরে রাওয়ালপিন্ডিতে টেস্ট ফিরেছে। বাংলাদেশ টেস্ট খেলতে পাকিস্তান গেছে ১৬ পঞ্জিকা বর্ষ পরে। কিন্তু মুমিনুলরা নিশ্চয় চাইবেন না এই মাঠে স্বাগতিকরা জয়ের ধারায়ও ফিরুক।

পাকিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় টেস্ট সফরে অবশ্য ভালো অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ রান পেলেও অনভিজ্ঞ এই বাংলাদেশ দল। টপ অর্ডারে সাইফ হাসান-নাজমুল শান্ত দু'জনই টেস্ট ফরম্যাটে নতুন। বোলিং আক্রমণে এবাদত এখনও আস্থার জায়গায় আসতে পারেননি।

ওদিকে রুবেল হোসেনের টেস্ট রেকর্ড ভালো নয় মোটেও। কিন্তু পুরনো বলের দায়িত্ব নিতে হবে তাকেই। তাইজুল-আবু জায়েদদের ভালো ফর্মের সঙ্গে এবাদতরা সাড়া দিলে ভালো করার সুযোগ আছে বাংলাদেশের।

পাকিস্তান অবশ্য নিটুট এক দল গড়েছে। বোলিং কিংবা ব্যাটিংয়ে খামতি নেই তাদের। এমনিতেই রাওয়ালপিন্ডির পেস-বাউন্স সহায়ক উইকেট। তাই ধুঁকতে হতে পারে বাংলাদেশের। তবে মুমিনুল হক ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, পিন্ডিতে ব্যর্থহার বৃত্ত ভাঙতে চান তারা।

মুমিনুল বলেন, আমরা ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই। দেশের বাইরে টেস্ট আমরা এতটা ভালো খেলতে পারি না। আমরা নিজেদের উন্নতির দিকে মনোযোগী এবং আমরা ভালো খেলতে চাই। আমরা চেষ্টা করছি, এখান থেকে শুরু করার জন্য। আমরা ভালো একটা ফোকাসে আছি, ভালো খেলার চেষ্টা করব।

আমাদের সঙ্গে মুশফিক ভাই নেই। আমরা তাকে মিস করব। তবে তামিম ভাই ফিরে এসেছে। উনি বিশ্বমানের খেলোয়াড়। আমার মনে হয় না এখানে খুব বেশি সমস্যা হবে উনার জন্য। সবশেষ বিসিএলে ভালো একটা ইনিংস খেলে এসেছে। সবশেষে বলবো একটা সময় না একটা সময় এই টানা হারের বৃত্ত ভাঙতে হবে। আমরা এই ম্যাচটা নিয়ে আশাবাদী।

বিজনেস আওয়ার/০৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে