করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
২১৮
৩৩
২০
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
২১১
১৪,২৯,৪৩৭
৮২,০৭৩
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬


ফাইনালে অশোভন আচরণ, নিষিদ্ধ ৫ ক্রিকেটার

১০:৩৫এএম, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচ শেষে অশোভন আচরণের কারণে বাংলাদেশ ও ভারতের পাঁচ ক্রিকেটারকে শাস্তি দিয়েছে আইসিসি। ভিডিও ফুটেজ দেখে আইসিসি উভয় দলের পাঁচ খেলোয়াড়কে কয়েকটি ম্যাচ নিষিদ্ধ করেছে।

সেদিন ম্যাচ শেষে বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশের হয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন অধিনায়ক আকবর আলী। কিন্তু তাতে খুব একটা লাভ হয়নি। তদন্ত শেষে প্রতিবেদন আইসিসির ম্যাচ রেফারি গ্রায়েম ল্যাব্রয় যে প্রতিবেদন দিলেন তাতে বাংলাদেশের সংখ্যাটাই বেশি।

অথচ ভারতের ক্রিকেটারদের অপরাধ কোন অংশে কম ছিল না। তার দেওয়া প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে যে তিন বাংলাদেশি শাস্তি পেয়েছেন তারা হলেন- তৌহিদ হৃদয়, শামিম হোসেন ও রকিবুল হাসান। আর ভারতের দুজন হলেন- আকাশ সিং ও রবি বিষ্ণয়। এদের সবাইকেই আইসিসির আচরণবিধির ২.২১ ধারা ভাঙায় অভিযুক্ত করা হয়েছে।

বাংলাদেশের তৌহিদ পেয়েছেন ১০টি সাসপেনশন পয়েন্ট, শামিমের সাসপেনশন পয়েন্ট ৮টি হলেও ডিমেরিট পয়েন্ট কিন্তু ৬টিই থাকছে। আর স্পিনার রকিবুল পেয়েছেন ৪টি সাসপেনশন পয়েন্ট যা ৫ ডিমেরিট পয়েন্টের সমান। এ পয়েন্টগুলো আগামী দুই বছর তাদের ক্যারিয়ারের থেকে যাবে।

এদিকে, ভারতের আকাশ সিং ৮টি সাসপেনশনসহ ৬ ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছেন। আর রবি বিষ্ণয় প্রথম অপরাধের জন্য ৫টি সাসপেনশন ও ৫ ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছেন। আর ২৩তম ওভারে অভিষেক দাস আউট হওয়ার পর বাজে ভাষা ব্যবহার করায় পেয়েছেন আরও ২টি ডিমেরিট পয়েন্ট।

উল্লেখ্য, ১টি সাসপেনশন পয়েন্ট মানেই একটি ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি, অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায় বা এ দলের একটি ম্যাচ থেকে বঞ্চিত। আইসিসির শোনানো এই শাস্তি অনুযায়ী আগামী দুই বছর জাতীয় দল বা অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে এই পাঁচ ক্রিকেটারকে এই শাস্তি ভোগ করতে হবে।

বিজনেস আওয়ার/১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে