করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
২১৮
৩৩
২০
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
২১১
১৪,২৯,৪৩৭
৮২,০৭৩
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬


বিয়ে করে শাস্তির মুখে সৌম্য সরকার

০২:৪৭পিএম, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকারের বিয়ে নিয়ে যেন আলোচনার শেষ নেই। খুলনার মেয়ে প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজাকে বিয়ে করেছেন সৌম্য সরকার। বুধবার রাতে খুলনা ক্লাবে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়। আর গতকাল শুক্রবার রাতে সাতক্ষীরা শহরের মোজাফ্ফর গার্ডেনে হয় বৌভাত।

তবে এ বিয়ে যত না বেশি আলোড়ন সৃষ্টি করেছে তার চেয়ে অধিক আলোড়ন তৈরি হয়েছে পারিপার্শ্বিক নানা ঘটনা নিয়ে। সৌম্যর বিয়ে ঘিরে ছিল নানা বিতর্ক, সমালোচনা। এমনকি মারামারির ঘটনাও ঘটেছে। বিয়েতে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে দুই জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এসব ঝামেলার মধ্য দিয়ে বিয়ের সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলেও বিপদ যেন পিছু ছাড়ছে না সৌম্য ও তার পরিবারের। জীবনের নতুন ইনিংসে নেমেই শাস্তির মুখে পড়তে যাচ্ছেন সৌম্য ও তার পরিবার। বিয়ের আশীর্বাদ অনুষ্ঠানে হরিণের চামড়া ব্যবহারের কারণেই কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হতে পারে সৌম্যকে।

সৌম্য সরকারের বিয়েতে হরিণের চামড়া ব্যবহার নিয়ে বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী ক্রাইম কন্ট্রোল ইউনিটের পরিচালক এসএম জহির উদ্দিন বলেন, ওই ঘটনার তদন্তে ঢাকা থেকে ইন্সপেক্টর অসীম মল্লিককে সাতক্ষীরায় সৌম্য সরকারের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। তিনি তদন্ত শেষ করে এর প্রতিবেদন অফিসে জমা দিলেই প্রতিবেদন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হরিণের চামড়া ব্যবহার নিয়ে সৌম্যের বাবা কিশোরী মোহন সরকার বলেন, এটি আমাদের পারিবারিক ঐতিহ্যের নিদর্শন। চামড়াটি মূলত প্রার্থনার জন্য ব্যবহার করা হয়। এটি বহু পুরনো। যুগ যুগ ধরে তা ব্যবহৃত হয়ে আসছে। বংশানুক্রমে আমি সেটি পেয়েছি।

সৌম্যের বিয়ের আনুষ্ঠানে হরিণের চামড়া ব্যবহার নিয়ে সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা আমাদের দেশের সম্পদ। তবে দেশের আইন তাদেরও মেনে চলা উচিত। বন্যপ্রাণীর চামড়া রাখার কোনো লাইসেন্স তাদের আছে কিনা তা জানতে হবে।

উল্লেখ্য, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনের ধারা ৬ অনুযায়ী, লাইসেন্স ব্যতীত কোনো ব্যক্তির কাছে বন্যপ্রাণী, বন্যপ্রাণীর অংশ পাওয়া গেলে অথবা বন্যপ্রাণী থেকে উৎপন্ন দ্রব্য বিক্রয়, আমদানি-রফতানি করলে তার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ এক বছরের সাজা অথবা ৫০ হাজার টাকা জরিমানা হতে পারে।

বিজনেস আওয়ার/২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে