ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬


ঋণের কিস্তি শিথিলের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা

০৫:০২পিএম, ২২ মার্চ ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : করোনা ভাইরাসের কারণে ঋণগ্রহীতাদের জন্য বিশেষ সুবিধার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আগামী জুন পর্যন্ত কোনও ঋণগ্রহীতা ঋণ শোধ না করলেও ঋণের শ্রেণিমানে কোনও পরিবর্তন আনা যাবে না বলে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ঋণের কিস্তি শিথিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ব্যবসায়ী নেতারা। কিস্তি পরিশোধে সক্ষম ঋণগ্রহীতারা যেন সুবিধার অপব্যবহার করতে না পারে- সেদিকে সর্তক দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

করোনাভাইরাসের প্রভাবে ব্যাংকিং ঝুঁকি হ্রাসে বিশেষ নীতিমালায় ঋণ পুনঃতফসিলের প্রভিশনে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। একইসঙ্গে গ্রাহকদের ঋণ পরিশোধেও দেয়া হয়েছে বিশেষ সুবিধা। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়, ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ঋণের কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হলে খেলাপি হবেন না গ্রাহকরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন, এফবিসিসিআই এর সাবেক এই সভাপতি। তিনি আশা করেন, এতে করোনা ভাইরাসের ফলে ব্যবসা-বাণিজ্যে নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় সহায়ক হবে।

তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ সিদ্ধান্তে আমদানি-রপ্তানিকারকরা লাভবান হলেও, লাভের সেই গুড়ে তেমন ভাগ পাবেন না প্রান্তিক ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য বলছে, দেশে মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ ৮১ হাজার ৮শ৭৯ কোটি টাকা।

প্রসঙ্গত, সার্বিক বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে— গত ১ জানুয়ারি ঋণের শ্রেণিমান যা ছিল, আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত ওই মানেই রাখতে হবে। এর চেয়ে বিরূপ মানের শ্রেণীকরণ করা যাবে না। ব্যাংক কোম্পানি আইন ১৯৯১– এর ৪৯ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হয় বলেও উল্লেখ করা হয়েছে প্রজ্ঞাপনে ।

বিজনেস আওয়ার/২২ মার্চ, ২০২০/কমা

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে