sristymultimedia.com

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


ইউনাইটেডের টানা তৃতীয় জয়, টটেনহ্যামের হোঁচট

০১:৪৪পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭

বিজনেস আওয়ার : রাতে সমর্থকদের মাতিয়ে রাখতে মাঠে নামবে ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসি ও লিভারপুল। ইতিহাদ স্টেডিয়ামে সাউদাম্পটনের বিপক্ষে লড়বে ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচটি শুরু হবে রাত ২ টায়। আরেক ম্যাচে সোয়ানসি সিটির মুখোমুখি হবে চেলসি। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ম্যাচটি শুরু হবে রাত পৌনে একটায়। এদিকে, জয়ের ধারায় ফেরার ম্যাচে রাত ২ টায় লিভারপুলের প্রতিপক্ষ স্টোক সিটি।

টানা ১৩ ম্যাচ অজেয় ম্যানচেস্টার সিটি। গেল মৌসুম কেটেছে তৃতীয় স্থানে থেকে। তবে, এবার জয়রথ ছুটেই চলছে সিটিজেনদের। ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপার দৌড়ে শীর্ষে আছে গার্দিওয়ালা বাহিনী। গেল ম্যাচে হার্ডাসফিল্ডের বিপক্ষে কষ্টের জয়ের পর এবার নতুন চ্যালেঞ্জের সামনে দাঁড়িয়ে ম্যানচেস্টার সিটি। প্রতিপক্ষ এবার সাউদাম্পটন।

ধুকতে থাকা এভারটনকে ৪-১ গোলে হারিয়ে আত্মবিশ্বাসে টইটুম্বুর সাউদাম্পটন ফুটবলারদের। তাই সেইন্টদের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সচেতনভাবে পা ফেলতে চান গার্দিওয়ালা। পরিসংখ্যানও মনে করিয়ে দিচ্ছে কোনভাবেই হালকাভাবে নেয়া যাবেনা সাউদাম্পটনকে। কারণ দু'দলের মুখোমুখি পরিসংখ্যানে সিটির ৩০ জয়ের বিপরীতে ৩১ জয় নিয়ে এগিয়ে আছে সেইন্ট। ড্র হয়েছে ৩০ টি ম্যাচ। তাই নিজেদের মাঠে খেলা হলেও স্বস্তিতে নেই দ্যা স্কাই ব্লুজ।

ইনজুরি থেকে ফিরে শেষ দু'ম্যাচ খেলেছেন ভিনসেন্ট কোম্পানি। ফর্মে থাকলে এ ম্যাচেও তাকে সুযোগ দিতে পারেন গার্দিওয়ালা। তবে, ইনজুরির কারণে বছরের বাকিটা সময় খেলতে পারবেন না জন স্টোনস ও বেঞ্জামিন মেন্ডি।

ম্যানচেস্টার সিটির চেয়ে কিছুটা স্বস্তি নিয়েই স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে সোয়ানসি সিটিকে আতিথ্য দিবে চেলসি। শুরুর হতাশা কাটিয়ে লিগে স্বরুপে ফিরেছে ব্লুজ। ১৩ ম্যাচে আট জয়ে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে চেলসি। শীর্ষে থাকা সিটির সঙ্গে ব্যবধান ১১ পয়েন্ট। তবে, তা নিয়ে মোটেও চিন্তা করছেন না কন্তে। এখনও বাকি অনেকটা পথ। বাকি ম্যাচগুলোতে সেরাটা দিয়ে খেলতে পারলে টানা দ্বিতীয় শিরোপা এখনও ধরাছোঁয়ার মধ্যেই দেখছেন কন্তে।

শেষ ম্যাচে উইলিয়ামের গোলে লিভারপুলের সঙ্গে হার এড়িয়েছে চেলসি। প্রতিপক্ষ সোয়ানসি সিটি টানা ৫ ম্যাচ জয় বঞ্চিত। ১৯তম স্থানে থাকা সোয়ানসি অবনমন এড়াতে একরকম সংগ্রাম করছে। তাই তাদের জন্য এটি একরকম অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার লড়াই।

পরিসংখ্যানে সোয়ানসির ৭ জয়ের বিপরীতে ১৫ জয় নিয়ে বেশ এগিয়ে আছে চেলসি। তাই এ ম্যাচে তারকা ফুটবলারদের বিশ্রামে রেখে অন্যদের সুযোগ দিতে চান কন্তে। ইনজুরির কারণে বাতসুই, মুসন্দা ও টমি আব্রাহামকে ছাড়াই পরিকল্পণা সাজাতে হবে চেলসি কোচকে।

আরেক ম্যাচে স্টোক সিটির বিপক্ষে লড়বে লিভারপুল। ১৩ ম্যাচে ৬ জয়ে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে অলরেড। এ ম্যাচে স্বাগতিকদের হারিয়ে নিজেদের আরো এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্য ক্লপের দলের।

বিজনেস আওয়ার / অ.মা

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে